Press "Enter" to skip to content

জব্দকৃত ইরানি তেল ট্যাংকার ছাড়ছে যুক্তরাজ্য

ইবেরীয় উপদ্বীপের দক্ষিণ প্রান্তে ব্রিটিশ ভূখণ্ড জাবাল আল তারিক বা জিব্রাল্টার উপকূলে জব্দ ইরানের তেল ট্যাংকার ছেড়ে দিচ্ছে যুক্তরাজ্য।

জিব্রাল্টারের মুখ্যমন্ত্রী ফাবিয়ান পিকার্দোর ঘনিষ্ঠ কয়েকটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য সান জানিয়েছে, ব্রিটিশ শাসিত জিব্রাল্টার বৃহস্পতিবার ইরানি ট্যাংকারটিকে ছেড়ে দেবে।

‘গ্রেস ওয়ান’ নামের ওই জাহাজটিকে আটক রাখার আদেশ পিকার্দো আর নবায়ন করবেন না বলে সানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এতে বলা হয়, পিকার্দো এখন সন্তুষ্ট যে,ইরানি ওই তেল ট্যাংকারটি আর সিরিয়ায় যাচ্ছে না।

জিব্রাল্টারের পক্ষ থেকে আটকাদেশের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করা না হলে ইরানি তেল ট্যাংকারের মুক্তির ক্ষেত্রে আর কোনো বাধা থাকবে না, সে ক্ষেত্রে তেল ট্যাংকারটিকে আজই ছেড়ে দেয়া হতে পারে।

গত ৪ জুলাই জাবাল আল-তারিক উপকূলের আন্তর্জাতিক পানিসীমা থেকে ২১ লাখ ব্যারেল তেলবাহী ইরানি ট্যাংকার ‘গ্রেস-১’কে আটক করে ব্রিটিশ নৌবাহিনী। তাদের দাবি, ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে সিরিয়ার একটি পরিশোধনাগারে তেল নিয়ে যাচ্ছিল ওই ট্যাংকার।

ট্যাংকারটি সিরিয়ায় যাচ্ছিল বলে দাবি করে ব্রিটেন জানায়, সিরিয়ার ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে গিয়ে ইরানি তেল ট্যাংকার আটক করা হয়েছে।

কিন্তু পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলো জানায়, ইরানের ওপর আরোপিত আমেরিকার একতরফা নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে ওয়াশিংটনের অনুরোধে লন্ডন ওই ইরানি ট্যাংকার আটক করেছে।

পরবর্তীতে গত ১৯ জুলাই পারস্য উপসাগরের হরমুজ প্রণালী অতিক্রমের সময় আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে ব্রিটিশ পতাকাবাহী তেল ট্যাংকার ‘স্টেনা ইমপেরো’কে জব্দ করে ইরান।

ট্যাংকার জব্দকে দস্যুবৃত্তি আখ্যায়িত করে সেটি ছেড়ে না দিলে পাল্টা ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছিল ইরান।

শেয়ার অপশন: