Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:২৭ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

জনরোষ থেকে বাঁচতে বাসায় কাঁটা তারের বেড়া দিচ্ছে খালেদা

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ  Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

নৌ-পরিবহন মন্ত্রী ও শ্রমিক, কর্মচারী, পেশাজিবী, মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক শাজাহান খান বলেছেন,জনরোষের হাত থেকে বাচার জন্য বেগম জিয়া বাসায় চারিদিকে কাঁটা তারের বেড়া দিচ্ছে।
তিনি বলেন, গণআন্দোলনের নামে ২০ দলীয় জোট নিরীহ মানুষ হত্যা করছে। বিএনপি নেত্রী অহিংস আন্দোলনের পরিবর্তে সহিংস আন্দোলন করছেন। তাদের সে আন্দোলনে জনগণের সাড়া নেই। বাংলার মানুষ হরতাল-অবরোধ চায় না। এ ধরনের আন্দোলন মানুষ এর আগে দেখেনি।
সাধারণত মানুষ সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে থাকে। কিন্তু বাংলাদেশের বর্তমান চিত্র সম্পূর্ণ উল্টো মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, মানুষ এখন বিরোধী দলের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে এটা একটা বিরল ঘটনা। নিরীহ মানুষ হত্যার দায়ে জনগণ এখন বেগম খালেদা জিয়ার বিচার দাবি করছে। আর জনরোষের হাত থেকে বাচার জন্য সরকার নয় বেগম জিয়া নিজেই বাসায় চারিদিকে কাঁটা তারের বেড়া দিচ্ছে।
নৌ পরিবহন মন্ত্রী আজ সদরঘাট টার্মিনাল সংলগ্ন চত্বরে শ্রমিক-কমচরী-পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচী অনুযায়ী গণ জমায়েতে এ কথা বলেন। কেরাণীগঞ্জের শুভঢ্যা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাজী মো. ইকবাল হোসেন এর সভাপতিত্বে জমায়েতে বক্তব্য রাখেন জাতীয় শ্রমিক জোটের সভানেত্রী শিরীন আখতার, সংসদ সদস্য হাজী মো: সেলিম, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ভাইস-চেয়ারম্যান ইসমত কাদির গামা, সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব আব্দুল মালেক মিয়া গার্মেন্টস শ্রমিক লীগের নেত্রী লীমা ফেরদৌস প্রমুখ।
শাজাহান খান বলেন, মানুষকে পুড়িয়ে, পেট্রোল বোমা মেরে, গাড়ী ভাংচুর করে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় ক্ষমতায় যাওয়া যায় না। দেখে-শুনে মনে হয় যেনতেন প্রকারে তিনি ক্ষমতায় যেতে চান। মনে হয় বেগম জিয়া বলছেন ‘তোরা যে যা বলিস ভাই, আমি মানুষ মেরে ক্ষমতায় যেতে চাই’।
শাজাহন খান বলেন, ‘সেদিন বেশী আর দূরে নয় যে দিন বেগম খালেদা জিয়াকে গুলশানের বাড়ি থেকে জনগণ বের করে এনে গণআদালতে বিচার করবে।’ ২০১৩ সালে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ৫৮ জন ড্রাইভারকে কুপিয়ে, পিটিয়ে আগুনে দগ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে এবং ১৭ জন পুলিশ হত্যাসহ প্রিজাইডিং অফিসারের পায়ের রগ কাটা হয়েছে। তার পরও নির্বাচন হয়েছে।
তিনি বলেন, ২০১৫ সালের ৫ জানুয়ারী থেকে এ পর্যন্ত ৯০ জন মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। ১ হাজারের বেশী গাড়ী পোড়ান ও ভাংচুর করা হয়েছে। একজন ড্রাইভারের মাথায় পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয়া হয়েছে । বেগম মিয়া জনগণের সাথে কি নৃশংস আচরণ করছেন দেশের মানুষ তা দেখেছে।

FOLLOW US: