ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৫০ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘জঙ্গি-দানব মুক্ত সমাজ নির্মাণে গণমাধ্যম সক্রিয় ভূমিকা রাখবে’

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘জঙ্গি-দানব মুক্ত সমাজ নির্মাণে গণমাধ্যম সক্রিয় ভূমিকা রাখবে’। ‘আইএস, জঙ্গি ও আগুনসন্ত্রাসীদের কাছ থেকে গণতন্ত্র ও ধর্মের সবক নেবার প্রয়োজন নেই। যে নামই তারা ব্যবহার করুক, জঙ্গিরা মানব নয়, দানব’।
তিনি আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সাংবাদিকতা পুরস্কার ‘ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং এওয়ার্ড ২০১৫’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। এসময় সাংবাদিকতা পুরস্কার প্রদানে ডিআরইউ-এর চলমান উদ্যোগের প্রশংসা করেন মন্ত্রী।
ডিআরইউ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা’র সভাপতিত্বে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ শফিকুর রহমান, ডিআরইউ এর সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনসহ ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং জুরিবোর্ড এর সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশের গণমাধ্যমকে জীবন্ত ও কর্মমুখর উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গি-দানব মুক্ত সমাজ নির্মাণে গণমাধ্যম সক্রিয় ভূমিকা রাখবে।’
যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায়ের বিরদ্ধে জামাত আহুত হরতাল প্রসঙ্গে হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘জঙ্গি-দানবের ডাকা হরতাল বাংলাদেশের মানবকূল প্রত্যাখান করেছে।’
একইসাথে সতর্কবানী উচ্চারণ করে তিনি বলেন, ‘কিন্তু জঙ্গিরা এখনও ধ্বংস হয়নি, এদের সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করতে হবে। জঙ্গিবাদবিরোধী জাতীয় ঐক্যে খুনী-আগুনসন্ত্রাসী এবং তাদের মদদদাতাদের কোন স্থান নেই।’
অনুষ্ঠানে প্রিন্ট মিডিয়ার ১৩টি, টেলিভিশন রিপোর্টিং এ ৮টি, রেডিও রিপোর্টিং এ ১টি এবং অনলাইন রিপোর্টিং এ ৪টি, মোট ২৬টি বিষয়ে ২৭ জন সাংবাদিকের হাতে পুরস্কার তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী।