Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৪০ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

“জঙ্গিবাদের উত্থান হবেই”

জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস নির্মূল ও গণতন্ত্র রক্ষায় সবাইকে একত্রিত হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেছেন, গণতান্ত্রকে নিষ্ক্রিয় করলে হলে দেশে জঙ্গিবাদের উত্থান হবেই। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পপতে জাতীয় ঐক্য দরকার। শনিবার বিকেলে সুপ্রিম কোটের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম আয়োজিত ৭ নভেম্বর বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বর্তমান সরকারের নীতির কারণেই এ দেশে জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটেছে মন্তব্য করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, সরকারের মনোভাব হচ্ছে দেশে শুধু একটি দলই রাজনীতি করতে পারবে, অন্যকোনো দলের রাজনীতি করার দরকার নেই। সরকারের এই মনোভাবের কারণে জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটছে। সরকার দেশকে এককভাবে চালাতে ব্যস্ত।তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক শক্তিসমূহকে নিষ্ক্রিয় করে ফেলা হলে দেশে জঙ্গিবাদের উত্থান হবেই। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে জাতীয় ঐক্যের বিকল্প নেই। দেশের সব গণতান্ত্রিক শক্তিসমূহকে ঐক্যবদ্ধ করে সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে যাতে সরকার আলোচনায় বসতে বাধ্য হয়। তিনি বলেন, পুলিশ বাহিনী তাদের দায়িত্ব থেকে সরে এসে শুধু বিরোধী দলকে ঠেকাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাদের বলা হয়েছে, তোমাদের একমাত্র কাজ হচ্ছে বিরোধী দলকে ঠেকানো। একারণেই পুলিশ সন্ত্রাস দমনে সফল হচ্ছে না।মওদুদ বলেন ব্লগার ও প্রকাশক হত্যাসহ সব ধরনের হত্যার বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে একত্রে বসতে হবে। আলোচনা করে এ সমস্যার সমাধান করতে হবে। এ সমস্যা এখন জাতীয় সমস্যা। সবাইকে মিলে একত্রিত হয়ে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ নির্মূল করতে হবে।জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস নিয়ে ব্লেম- গেম খেলা ঠিক হবে না জানিয়ে তিনি বলেন, এসব হত্যাকাণ্ডের জন্য বারবার বিএনপির উপর দোষ চাপানো ঠিক হবে না। বিএনপি সবসময় সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে। দেশের রাজনীতি প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, রাজনীতি আজ পয়সাওয়ালাদের কাছে চলে যাচ্ছে। যারা অর্থ উপার্জনের জন্য রাজনীতি করেন তারা রাজনীতিবিদ নন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব:) আ.স.ম হান্নান শাহ, নজরুল ইসলাম খান, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।এদিকে ৭ নভেম্বর উপলক্ষে একই বিষয়ে সুপ্রিমকোর্টে আলোচনা সভা করেছে জাতীয়তাবাদী যুব আইনজীবী সমিতি। সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. ফারুক হোসেন এতে সভাপতিত্ব করেন। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল্লা আল বাকী।