Press "Enter" to skip to content

ছাত্র রাজনীতিকে জাতীয় রাজনীতিতে টানবেন না : তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আজ বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ছাত্র রাজনীতিকে জাতীয় রাজনীতিতে টেনে না আনার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে বলতে চাই, ছাত্র রাজনীতি ছাত্রদের হাতেই থাকতে দিন। ছাত্র রাজনীতিকে জাতীয় রাজনীতিতে টেনে আনবেন না।’

তথ্যমন্ত্রী আজ রাজধানীতে ‘ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং মহান স্বাধীনতা দিবস পালন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স পরিষদ এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা এবং সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দিন খান আলমগীর।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ডাকসু নির্বাচনের একটি ইতিবাচক দিক হলো দীর্ঘ ২৮ বছর পর এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। তিনি বলেন, ‘এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ছাত্র নেতৃত্ব গড়ে উঠবে। এটি ছাত্র রাজনীতির জন্য একটি ইতিবাচক দিক।’

তিনি বলেন, বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একটি ইস্যু তৈরি করতে চাচ্ছিল।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির রাজনীতি এখন শুধু সংবাদ সম্মেলনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। তারা প্রতিদিন সকালে ও বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করছে। তিনি বলেন, ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদলকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তারা এই নির্বাচনে হারিয়ে গেছে।

তথ্যমন্ত্রী হাছান বলেন, বাম ও ডানপন্থিদের সম্মিলিত চেষ্টাও ডাকসু নির্বাচনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিজয় ঠেকাতে পারেনি।

তিনি বলেন, অন্য প্যানেল থেকে ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের, যারা ভোট বর্জন করেছিল, বিজয় প্রমাণ করেছে প্রকৃতপক্ষে তারাই পরাজিত হয়েছে এবং ছাত্রলীগ বিজয়ী হয়েছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দীর্ঘ ২৮ বছর পরে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। অতীতে দেখা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি নির্বাচনে ছাত্রীরা লাঞ্ছিত হয়েছে। এ বছর এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি। তিনি বলেন, এই নির্বাচনে বামপন্থি, ডানপন্থি এবং কোটাসংস্কার আন্দোলনকারিরা সহ সকল পক্ষ অংশ নিয়েছে।

দেশের চলমান উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করেছিলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাসহ অনেক বিশ্ব নেতা বাংলাদেশের দ্রুত উন্নয়নের প্রশংসা করেছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তবে কিছু লোক এই উন্নয়ন স্বীকার করতে চান না, তারা দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করতে বেশি ব্যস্ত থাকেন।’

ড. হাছান মাহমুদ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলার গড়তে দেশের চলমান উন্নয়ন নিয়ে ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান।

Mission News Theme by Compete Themes.