শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:১৬ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৭ই জানুয়ারি ২০১৯ ইং

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ফাইল ফটো

‘ছদ্মবেশীরা বিএনপির নেতৃত্বে ষড়যন্ত্রে’ -কাদের

ছদ্মবেশী মুক্তিযোদ্ধারা বিএনপির নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নানা ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, তারা নির্বাচন বানচাল এবং দেশবিরোধী নানা চক্রান্ত করছে। তবে ষড়যন্ত্র যতই হোক নির্বাচন হবে। ইনশাল্লাহ হবে, কোনো অপশক্তিই ৩০ ডিসেম্বরের ভোট বানচাল করতে পারবে না।

রোববার ফেনী রাজাঝি’র দিঘী পাড়ে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পর তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি ২০১৪ সালের মত নির্বাচন বানচাল করতে সহিংসতার পথ বেছে নিয়েছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির হামলায় এরইমধ্যে নোয়খালী ও ফরিদপুরে আওয়ামী লীগের দু’জন কর্মী নিহত হয়েছেন। আমাদের দলের বহু কর্মী তাদের হামলায় আহত হয়েছেন। বিএনপির কোনো কর্মীকে নির্বাচনী সহিংসতায় প্রাণ দিতে হয়নি। এ থেকে বোঝা যায়, দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে তারাই, আওয়ামী লীগ নয়।

নোয়াখালীতে বিএনপির প্রার্থী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনকে পুলিশ গুলি করার বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপি নিজেরাই অস্থিতিশীল পরিস্থিতি করতে চায়। হামলার ছক তারাই তৈরি করেছে, পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে গিয়ে পুলিশকে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশকে বাধ্য করেছে হস্তক্ষেপ করতে। সে অবস্থায় মাহবুব উদ্দিন খোকন আক্রান্ত হয়েছেন। তার গায়ে ছররা গুলি লেগেছে। তাকে হাসপাতালেও থাকতে হয়নি, প্রাথমিক চিকিৎসার পর তিনি বাসায় ফিরে গেছেন।

আওয়ামী লীগ ফের ক্ষমতায় এলে বেকারত্ব ও দারিদ্র দূর করা হবে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকার মঙ্গাকে যেমন জাদুঘরে পাঠিয়েছে তেমনি আগামী পাঁচ বছরে বাংলাদেশের বেকার ও দারিদ্রকে জাদুঘরে পাঠানো হবে। সব বাধা মোকাবেলা করে ২০২৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জাহানারা বেগম সুরমা, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বিকম, ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলা উদ্দিন প্রমুখ।