ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:৪৩ ঢাকা, সোমবার  ২৩শে জুলাই ২০১৮ ইং

ডোনাল্ড ট্রাম্প
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

চীন নীতি নিয়ে ট্রাম্পের অবস্থান পরিবর্তন

চীন নীতি নিয়ে রীতিমতো অবস্থান পরিবর্তন করলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে চীন নীতির প্রতি সমর্থন জানালেন তিনি।

বৃহস্পতিবার চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে টেলিফোনে ‘এক চীন নীতি’র প্রতি ওয়াশিংটনের সমর্থনের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি।

চীনের এ নীতির ব্যাপারে প্রশ্ন তোলায় বেইজিং ক্ষুব্ধ হওয়ার পর উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টায় ট্রাম্প এ ফোন করেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চীনের এ নেতার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলার সময় ‘এক চীন নীতি’র প্রতি ‘সম্মান’ জানানোর ব্যাপারে সম্মত হন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি মেনে নেন, তাইওয়ান চীন থেকে বিচ্ছিন্ন কোনো দেশ নয়।

হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট শি’র অনুরোধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘এক চীন’ নীতির প্রতি সম্মান জানান।

হোয়াইট হাউজ জানায়, এ দুই নেতার মধ্যে টেলিফোন আলোচনা ছিল দীর্ঘ এবং বেশ আন্তরিক। তারা পরবর্তীতে বিভিন্ন সফলতা নিয়ে আরও আলোচনার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন।

চীনের সরকারি সম্প্রচার কেন্দ্র সিসিটিভির খবরে বলা হয়, ‘এক চীন নীতি’র ব্যাপারে দেয়া আমেরিকান সরকারের প্রতিশ্রুতির ওপর ট্রাম্প গুরুত্ব দেয়ায় শি জিনপিং এর প্রশংসা করেছেন।

তবে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার আগে ট্রাম্প এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, বাণিজ্য ও অন্যান্য বিষয়ে চুক্তি না হলে ‘এক চীন নীতি’ মানতে যুক্তরাষ্ট্র বাধ্য নয়।

এছাড়া ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে তাকে ফোন করে অভিনন্দন জানান তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন। ওই ফোনালাপের ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছিল বেইজিং।