ম্যানচেস্টার সিটি এখন প্রিমিয়ারশিপের তালিকার শীর্ষে

চীনা টাকা ব্রিটেনের ফুটবলে

চীনা কয়েকজন বিনিয়োগকারী ব্রিটেনের অন্যতম শীর্ষ ফুটবল ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটির ১৩ শতাংশ মালিকানা কিনে নিয়েছে।

চায়না মিডিয়া ক্যাপিটাল নামে চীনা বিনিয়োগকারীদের একটি কনসোর্টিয়াম ২৬৫ মিলিয়ন পাউন্ড দিয়ে ম্যান সিটির মালিকানার ভাগীদার হয়েছে।

আবু ধাবির রাজপরিবারের সদস্য শেখ মনসুরের সিটি ফুটবল গ্রুপ (সিএফজি) ম্যানচেস্টার সিটির মালিক।

ম্যানচেস্টার সিটি ছাড়াও এই কোম্পানি মার্কিন ফুটবল ক্লাব নিউইয়র্ক সিটি এফসি, অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন সিটি এফসি এবং জাপানের ইয়োকোহামা মারিনোসের মালিক।

শেখ মনসুর এতদিন বিশ্বের নানা দেশে শুধু নতুন নতুন ক্লাবে পয়সা বিনিয়োগ করেছেন। কিন্তু এই প্রথম তিনি মালিকানার অংশ বিক্রি করলেন।

ম্যানচেস্টার সিটির পক্ষ থেকে বিবিসিকে বলা হয়েছে, চীনের কাছে শেয়ার বিক্রির অর্থ এই নয় যে আবু ধাবির বর্তমান মালিক ক্লাব থেকে সরে যেতে চাইছেন।

বরঞ্চ, তারা বলছেন, পূর্ব এশিয়ায় সমর্থক এবং ব্যবসা বাড়াতে চীনাদের কাছে শেয়ার বিক্রির এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ইউরোপের শীর্ষ ক্লাবগুলোর মধ্যে একমাত্র রিয়েল মাদিদ্রের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সমর্থক রয়েছে চীনে। ম্যানচেস্টার সিটি এখন ঐ বাজারে ঢুকতে চাইছে।

ফুটবল শক্তি হতে চায় চীন

চীনে ফুটবল অত্যন্ত একটি জনপ্রিয় খেলা, এবং এই জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। আন্তর্জাতিক ফুটবল জগতে শক্তি বাড়াতে চাইছে চীন।

সম্প্রতি চীনা প্রেসিডেন্ট জি জিনপিং ব্রিটেন সফরে এসে এ মুহূর্তে ইংলিশ লীগের শীর্ষ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটির মাঠ এতিহাদ স্টেডিয়াম দেখতে গিয়েছিলেন। আর তার কিছুদিনের মধ্যেই ম্যান সিটিতে চীনা বিনিয়োগ চূড়ান্ত হলো।

ইংল্যান্ডের সলফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্পোর্টস বিজনেস বিভাগের অধ্যাপক ক্রিস ব্রাডি বলছেন, “এই কেনা-বেচায় শুধু যে ম্যানচেস্টার সিটি লাভবান হবে তাই নয়, ফুটবল শক্তি হওয়ার যে স্বপ্ন চীন দেখছে, সে পথে তাদের এগুতে সুবিধা হবে।”

চীন এর আগে ইটালির লীগ সিরি-আ তে পয়সা বিনিয়োগ করেছে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ভবিষ্যতে ইউরোপের ফুটবল লীগগুলোতে হয়ত এরকম আরো চীনা বিনিয়োগ চোখে পড়বে। বিবিসি।