Press "Enter" to skip to content

চিকিৎসাবিদ্যায় নোবেল পুরস্কারে ভূষিত তিন বিজ্ঞানী

প্যারাসাইট বা পরজীবী-জনিত সংক্রমণের মোকাবিলায় গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য চিকিৎসাবিদ্যায় এ বছরের নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন মোট তিনজন বিজ্ঞানী।

রাউন্ডওয়ার্ম বা গোলকৃমি প্যারাসাইট থেকে যে সব সংক্রমণ হয় তার মোকাবিলায় নতুন একটি ওষুধ আবিষ্কার করে পুরস্কারের অর্ধেকটা পেয়েছেন উইলিয়াম সি ক্যাম্পবেল ও সাতোশি ওমুরা।

নোবেল পুরস্কারের বাকি অর্ধেক পাচ্ছেন ইউইউ তু – ম্যালেরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তাঁর উদ্ভাবিত থেরাপির জন্য।

নোবেল পুরস্কার কমিটি বলেছে, এই তিন বিজ্ঞানীর কাজ কোটি কোটি মানুষের জীবনই পাল্টে দিয়েছে – যারা এই সব প্যারাসাইটজনিত সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন।

সবচেয়ে বড় কথা, এই সব মানুষের বেশির ভাগই বাস করেন পৃথিবীর দরিদ্রতম দেশগুলোতে।

নোবেলজয়ী উইলিয়াম সি ক্যাম্পবেলের জন্ম আয়ার্ল্যান্ডে, আর তাঁর সহকর্মী সাতোশি ওমুরা জাপানের লোক। মিস তু একজন চীনা নাগরিক।

ম্যালেরিয়ার মতো মশা-বাহিত রোগে প্রতি বছর সারা পৃথিবীতে সাড়ে চার লক্ষেরও বেশি মানুষ মারা যান – আরও শত শত কোটি মানুষ এই সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকেন।

বিশ্বের মোট জনসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশই প্যারাসাইটিক ওয়ার্ম থেকে বিপদের মুখে পড়তে পারেন। এই ধরনের কৃমি থেকে রিভার ব্লাইন্ডনেস বা লিম্ফেটিক ফিলারায়াসিসের মতো নানা ধরনের অসুখ হতে পারে।

প্রসঙ্গত, চীনের ইউইউ তু হলেন ত্রয়োদশ মহিলা, যিনি চিকিৎসাবিদ্যায় নোবেল পুরস্কার পেলেন।

শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!