Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৩৪ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ
র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ ডাকাত নিহত, ফাইল ফটো

চার শিশুকে বালিচাপা দিয়ে হত্যার পরিকল্পনাকারী বন্দুকযুদ্ধে নিহত

হবিগঞ্জের চার শিশু হত্যা মামলার অন্যতম সন্দেহভাজন বাচ্চু মিয়া র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ভোর রাত সোয়া ৪টার দিকে চুনারুঘাটের দেবরগাছিতে এই ঘটনা ঘটে বলে র‍্যাবের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

র‍্যাব-৯ উপ অধিনায়ক মেজর হুমায়ুন কবির জানান, তাদের কাছে খবর ছিল যে, বাচ্চু মিয়া গোপনে ভারত চলে যাবার চেষ্টা করছে। ফলে তাদের টহল টিম ও গোয়েন্দা নজরদারি ছিল।

‘ভোর রাতে চুনারুঘাটের দেবরগাছিতে একটি সন্দেহজনক গ্রুপ দেখে র‍্যাবের টহল টিম চ্যালেঞ্জ করে। কিন্তু তারা র‍্যাবের উপর গুলি করলে র‍্যাবও পাল্টা গুলি করে। পরে অন্যরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থলে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে বলে হুমায়ুন কবির জানান।

হবিগঞ্জের আলোচিত চার শিশু হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় থানা পুলিশের পাশাপাশি ছায়া তদন্ত করছে র‍্যাব।

চার শিশু হত্যার ঘটনায় বিশ্বনাথ থেকে সাহেব আলী নামের একজন সন্দেহভাজনকে আটক করেছে র‍্যাব।

এ ঘটনায় আটক কয়েকজন আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে প্রধান পরিকল্পনাকারী হিসাবে বাচ্চু মিয়ার নাম জানিয়েছে।

যদিও এর আগে বাচ্চু মিয়ার পরিবার দাবি করেছিল, মামলার একদিন পরেই তাকে বাড়ি থেকে র‍্যাবের সদস্যরা তুলে নিয়ে গেছে।

'নিখোঁজের পাঁচদিন পর বালুর নিচ থেকে চার শিশুর লাশ উদ্ধার'

‘নিখোঁজের পাঁচদিন পর বালুর নিচ থেকে চার শিশুর লাশ উদ্ধার’

গত ১২ ফেব্রুয়ারী বাড়ির পাশে মাঠে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয় চারটি শিশু। এদের মধ্যে তিনজন আত্মীয়, একজন তাদের প্রতিবেশী।

পাঁচদিন পর গ্রামের একটি বিল এলাকায় তাদের বালিচাপা মৃতদেহ পাওয়া যায়।

এই চার শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা করার প্রমাণ পেয়েছেন ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক।

পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার দুইজন সম্প্রতি আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিতে বলেছেন, পঞ্চায়েতের বিরোধের জের ধরে বাচ্চু মিয়া এবং তারা মিলে এই চার শিশুকে হত্যা করেছে। বিবিসি