ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:৫৪ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, ছবিঃ সংগৃহীত

চাকরি হওয়া উচিত ‘চুক্তি ভিত্তিক’ : অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, চাকরি হওয়া উচিত চুক্তি ভিত্তিক এবং তা দশ বা পনেরো বছরের জন্য। এটা যেকোন বয়সে হতে পারে।

বুধবার সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

নির্বাচনকালীন সরকারের সদস্য সংখ্যা কত হবে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমার ধারণা নেই। অন্তর্বর্তী সরকারে থাকবেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, সম্ভবত থাকবো। আমার ধারণা নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবর মাসে হবে। কারণ ডিসেম্বরে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর নির্বাচনকালীন সরকার তিন মাস আগে হতে হয়। সেজন্য অক্টোবরের মাঝামাঝি এই অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করা হতে পারে।

সরকারি চাকরিতে অবসরের বয়স সীমা বাড়ছে কি না, এ বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, অবসরের বয়স বাড়ানোর পরিকল্পনা আমার ছিল। আমি প্রস্তাবও দিয়েছিলাম, কিন্তু হয়নি। তবে আমার মনে হয় নির্বাচনের আগে কোনো পরিবর্তন হবে না।

চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়িয়ে ৩২ করা হচ্ছে এমন বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমি জানি না। তবে চাকরির বয়স বেশি হলে আমার আপত্তি নেই। আমার মতে চাকরি হওয়া উচিত চুক্তি ভিত্তিক, যেমন দশ বা পনেরো বছরের জন্য। এটা যেকোন বয়সে হতে পারে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি যাওয়া রিজার্ভের অর্থ ফেরতের বিষয়ে অগ্রগতি জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে ফিলিপাইনের ব্যাংকের বিরূদ্ধে এখনো মামলা হয়নি। বাংলাদেশ ব্যাংক এটা নিয়ে কাজ করছে। তারা একজন আইনজীবী নিয়োগ দিয়েছে। মামলাটা হবে নিউইয়র্কে। ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক এটার পার্টি হবে।

পদক সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পদকের সোনা নিয়ে যে সমস্যা ছিল তা বহু আগেই সমাধান হয়েছে। এটা অনেক আগের ব্যাপার।