Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:৪২ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ডিএমপি কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া
ডিএমপি কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া

চাঁদাবাজি-জনহয়রানি করলেই কঠোর ব্যবস্থা নেব : ডিএমপি কমিশনার

ডিএমপি কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, যদি কেউ চাঁদাবাজি, জনহয়রানি করে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঢাকা শহরের প্রতিটি নাগরিককে সমানভাবে নিরাপত্তা দিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ অঙ্গীকারবদ্ধ এবং সেলক্ষ্যে জীবনবাজি রেখে নিরলসভাবে কাজ করছে।

রাজধানীর সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে আজ দুপুরে আইন শৃঙ্খলা ও ট্রাফিক সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তেব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ ও সায়েদাবাদ টার্মিনাল মালিক ও শ্রমিক কমিটি। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব ও ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ।

প্রধান অতিথি ডিএমপি কমিশনার বলেন- সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে ঈদের সময় লক্ষ লক্ষ মানুষ যাতায়াত করে। পুলিশ, শ্রমিক-মালিক ও সিটি করপোরেশনের সহায়তায় কোন রকম বিড়ম্বনা ছাড়াই এবারের ঈদেও ঘরমুখী মানুষেরা বাড়ি যাবে। ইতোমধ্যে নগরীর টার্মিনাল কেন্দ্রীক ব্যাপক নিরাপত্তা আমরা নিয়েছি।

গাড়ির মালিক ও শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন- কোন গাড়ি রাস্তায় দাঁড়িয়ে যাত্রী উঠানামা করবেন না। টার্মিনাল হতে যাত্রী নিয়ে সোজা গন্তব্যে ছেড়ে যাবে। গাড়িতে যাত্রী নেয়ার জন্য যদি কেউ যাত্রীদের টানাটানি করে এবং জননিরাপত্তার বিঘ্নতা সৃষ্টি করে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। কোন অবস্থায় ঈদে ঘরমুখো মানুষের কাছ থেকে নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা যাবে না। অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ঠেকাতে থাকবে মোবাইল কোর্ট ও মনিটরিং টিম।

কমিশনার আরও বলেন- কোন টার্মিনালে আমরা এখনো পর্যন্ত চাঁদাবাজি, টিকিট কালোবাজারির সংবাদ পাইনি। যদি কেউ চাঁদাবাজি ও টিকিট কালোবাজারি করে তাকে একটুকুও ছাড় দেয়া হবে না। গত ২ মাসে ১০০ জনের মত অজ্ঞান ও মলম পার্টির সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমাদের গোয়েন্দা ও থানা পুলিশ অজ্ঞান ও মলম পার্টিদের ধরতে কাজ করে যাচ্ছে।

যদি কেউ বড় অংকের টাকা বহন করতে চান তাহলে পুলিশের মানি এস্কর্ট নিয়ে ঢাকা শহরের যেকোন জায়গায় টাকা বহন করে নিয়ে যেতে পারেন। মানি এস্কর্ট ছাড়া বড় অংকের টাকা বহন না করাই ভালো। ঈদের জামাতকে কেন্দ্র করে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ঈদে ঘরমুখী মানুষের নিরাপদে যাতায়াত নিশ্চিত করতে হাতে হাত, কাঁধে কাঁধ রেখে সকলের প্রতি এক সাথে কাজ করার আহবান জানান ডিএমপি কমিশনার।

অন্যান্যদের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মোঃ মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মোসলেহ আহমেদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও পরিবহন মালিক-শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।

Optimized with PageSpeed Ninja