Press "Enter" to skip to content

“চলমান উন্নয়নই বাংলাদেশকে ‘উন্নত দেশ’ করবে”

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ডই দ্রুত বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করবে। এসব কার্যক্রম নির্ধারিত সময়ে সম্পন্ন করতে প্রচুর বিনিয়োগ প্রয়োজন।

আজ বুধবার চীনের ডালিয়ানে ওয়ার্ল্ড ইকোনমি ফোরামের ‘দ্যা ফিউচার অফ দ্যা বেল্ট এন্ড রোড ইনেশিয়েটিভ’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

নসরুল হামিদ বলেন, চীনের ‘দ্যা বেল্ট এন্ড রোড ইনেশিয়েটিভ’ উদ্যোগটি এ বিনিয়োগের একটি প্লাটফরম হতে পারে। অবশ্য এ উদ্যোগটি জাপান, ভারত, যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশকেই বাংলাদেশের দিকে আকৃষ্ট করছে।

তিনি বলেন, চীনের এ উদ্যোগ বাংলাদেশের জন্য ভালো। তবে অ্যাকশন প্ল্যান, প্রযুক্তি হস্তান্তর, সাংস্কৃতিক ঐক্য, স্বচ্ছতা ও যথাযথ প্রচার এ উদ্যোগকে আরো বাস্তবমুখী করবে। জাপান বাংলাদেশে শুধু বিদ্যুৎ খাতের একটি প্রকল্পে ৬৫ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের পূর্বে বিদ্যুৎ খাতের মাস্টার প্ল্যান করেছিল। চীনও দৃশ্যমান এসব অ্যাকশন প্ল্যান নিয়ে এগুতে পারে।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে চীনের বিনিয়োগের প্রচুর সুযোগ রয়েছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতের প্রযুক্তি হস্তান্তরসহ নানা খাতে বিনিয়োগের সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে চীনা ইসিএ অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প রয়েছে ৫টি, যৌথ উদ্যোগে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প ও প্রতিষ্ঠান রয়েছে ৬টি, বিদ্যুৎ বিভাগের বিভিন্ন সংস্থা কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ৩১টি প্রকল্প ও কাজের সাথে চীনা ঠিকাদার নিয়োজিত রয়েছে এবং চীন সরকারের সাথে জিটুজি ভিত্তিতে বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাবিত প্রকল্পের সংখ্যা ৭টি যার মধ্যে ২টি অনুমোদিত।

চায়না গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক (সিজিটিএন)-এর তাইয়ন উই-এর সঞ্চালনায় প্যানেল আলোচনায় চীনের রেনমিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র ফেলো ব্রোনো মাকাস, চীনের জাতীয় বিল্ডিং মেটেরিয়াল গ্রুপের চেয়ারম্যান সং ঝিপিং ও জতিসংঘের ইউরোপ বিষয়ক অর্থনৈতিক কমিশনের নির্বাহী সচিব ওলগা আলগায়েরোভা বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার অপশন: