Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:০৬ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া

‘ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি পুন:নির্মাণে পাশে থাকবে সরকার’ – ত্রাণমন্ত্রী

সরকার ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে আছে, ঘরবাড়ি পুন:নির্মাণে সবধরনের সহযোগিতা করবে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম আজ চট্টগ্রাম নেভি হাসপাতাল পরিদর্শনকালে এ কথা বলেন। নৌবাহিনীর সদস্যরা ঘূর্ণিঝড় মোরা’য় আহত চার জেলেকে উদ্ধার করে। ঝড়ের সময় নৌবাহিনী যে কয়জন জেলেকে গভীর সমুদ্র থেকে উদ্ধার করে তাঁরা তাদের অন্যতম।

এ সময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মোঃ শাহ্ কামাল, নৌবাহিনীর চট্টগ্রাম অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার রিয়ার এডমিরাল আবু আশরাফুল হক উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী চারজনকে চিকিৎসার জন্য দশ হাজার টাকা করে সহায়তা দান করেন।

মায়া বলেন, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার জেলা এবার ঘূর্ণিঝড়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখানে প্রায় ২০ হাজার ঘরবাড়ি ভেঙ্গে গেছে। এসব ঘরবাড়ি পুন:নির্মাণে সবধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন মন্ত্রী।
প্রবল ঘূর্ণিঝড় উপেক্ষা করে গভীর সমুদ্র থেকে জেলেদের উদ্ধার করায় তিনি নৌবাহিনীকে ধন্যবাদ দেন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ত্রাণসামগ্রী নিয়ে হাতিয়া, সন্দ্বীপের দুর্গত মানুষকে দ্রুত সময়ে ত্রাণ পৌঁছে দেয়ায় তিনি নৌবাহিনীর প্রশংসা করেন।

যে কোন সময়ের তুলনায় এ ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি কম হওয়ার কারণ হিসেবে তিনি গণমাধ্যম ও মাঠ প্রশাসনের সক্রিয় ভূমিকার প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, এবারের দুর্যোগে জনগণকে সতর্ক করে যথাসময়ে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসতে গণমাধ্যম ভূমিকা রেখেছে।

এতো অল্প সময়ের মধ্যে এতো লোককে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসা ও তাদের ইফতার সেহরীর আয়োজন করা মাঠ প্রশাসনের জন্য চ্যালেঞ্জিং ছিল বলেও তিনি উল্লেখ করেন।