ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:৩০ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

আনিসুল হক
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক, ফাইল ফটো

গ্রেফতার-রিমান্ড বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা থাকলে সংশোধন হবে: আইনমন্ত্রী

আইন,বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ফৌজদারি কার্যবিধি বিভিন্ন প্রেক্ষাপটে সংশোধন করা হয়েছে। গ্রেফতার ও রিমান্ড সংক্রান্ত আইন বিষয়ে যদি উচ্চ আদালতের কোনো নির্দেশনা থাকে, জনগনের স্বার্থের কথা বিবেচনা করে তাও সংশোধন করা হবে।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে এক ব্রিফিংয়ে ৫৪ ও ১৬৭ ধারা বিষয়ে আপিল বিভাগের রায়ের পর এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, উচ্চ আদালত এ সংক্রান্ত রিট মামলাটি আমলে নিয়েছেন। এখনো রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি হাতে পাইনি। রায় পেলে তার আলোকে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, আইনে কিছু কিছু জরুরি ধারা থাকে। ৫৪ ধারা সে রকম একটি ধারা। জরুরি পরিস্থিতির জন্য এ ধারা প্রযোজ্য। তবে এটি আপনি কিভাবে ব্যবহার করছেন, সেটি দেখার বিষয়। বর্তমান আইন যে পর্যায়ে আছে, তার সংশোধন করা প্রয়োজন উল্লেখ করে

আইনমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে আদালত পর্যবেক্ষণ দেবেন বলে আশা করছি। তবে ৫৪ ধারা পুরোপুরি বাদ দেয়া বাস্তবসম্মত নয় বলে তিনি মত দেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, পুলিশ যে ব্যক্তিকে গ্রেফতার করছে, যদি মনে করে, তার মাধ্যমে কোনো অপরাধ সংঘটিত হতে পারে, তাহলে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করতে পারে। আর আইনেই বলা আছে যে, গ্রেফতারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে হাজির করতে হবে।

৫৪ ধারায় বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার এবং ১৬৭ ধারায় রিমান্ড আইন সংশোধন সংক্রান্ত হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে করা আপিল খারিজ (ডিসমিসড) করে দিয়েছে আজ সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ আজ এ রায় দেয়। রায়ে কিছু মডিফিকেশন এবং গাইডলাইন থাকবে বলে উল্লেখ করা হয়।