Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:০৩ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

গ্রেফতার বন্ধ না হলে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না

পৌর নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন।
তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে গ্রেফতার বন্ধ না হলে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।
মঙ্গলবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিপন এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সারাদেশে বিরোধী দলের প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার করছে সরকার। গ্রেফতার বন্ধ না হলে পৌর নির্বাচনও ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি নির্বাচন হবে।
বিএনপি মুখপাত্র বলেন, বিএনপির প্রার্থীদের গ্রেফতার ও হয়রানি করে পৌরসভা নির্বাচনে সরকার প্রতিযোগিতার মাঠ নষ্ট করছে। এরফলে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের ভূমিকাও প্রশ্নবিদ্ধ হবে।
তিনি বলেন, আমরা গ্রেফতার বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছিলাম। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তফসিল ঘোষণার আগে ও পরে গ্রেফতার করেই চলছে।
রিপন বলেন, সোমবার মানিকগঞ্জের বিএনপির প্রার্থী এ এফ এম আজিজুল হককে কোনো কারণ ছাড়াই গ্রেফতার করেছে। এরকম গ্রেফতার চলতে থাকলে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।
নির্বাচন কমিশনকে সরকারের আজ্ঞাবহ কমিশন আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন সরকারের দিকে তাকিয়ে থাকে- সরকার কী নিদের্শ দেয়। সরকারকে খুশি করার জন্য নিদের্শ অনুযায়ী কাজ করে।
বিএনপি মুখপাত্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কমিশন যদি কোনো পদক্ষেপ না নিতে পারে, তাহলে তাদের কমিশনে থাকার দরকার কী? এজন্য আমরা নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ চেয়েছিলাম।
তিনি বলেন, বিএনপির দাবি অনুয়ায়ী ১৫ দিন পিছিয়ে দিলে ৫০ লাখ ভোটার ভোট দেয়ার সুযোগ পেত। কিন্তু নির্বাচন কমিশন আমাদের দাবিকে তোয়াক্কা করেনি।
রিপন বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন করার সামর্থ্য নির্বাচন কমিশন অনেক আগেই হারিয়েছে। সরকারের ক্ষমতার কাছে নতজানু হয়েছে। দেশী-বিদেশী মহলে অক্ষমতার পরিচয় দিয়েছে।
তিনি বলেন, নির্বাচন পেছানোর জন্য তাবলিগ জামাতের যুক্তি মেনে নেয়া যায়, কিন্তু পরীক্ষার যুক্তিটা অগ্রহণযোগ্য।
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সহ-দপ্তর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন, আব্দুল লতিফ জনি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।