Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:৪২ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

আছাদুজ্জামান মিয়া
ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, ফাইল ফটো

‘গ্রেনেড হামলার রায়কে ঘিরে শঙ্কিত হবার কারণ নেই’

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে ঘিরে কোনও স্বার্থান্বেষী মহল সহিংসতার চেষ্টা করলে তা কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

তিনি বলেন, আগামীকাল বুধবার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়। এটা আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রমের একটা অংশ। এ রায়কে কেন্দ্র করে নিরাপত্তাজনিত কোনো হুমকি ও নিরাপত্তা বিঘ্ন হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ রায়কে ঘিরে শঙ্কিত হবার কোনও কারণ নেই।

ডিএমপি কমিশনার আজ মঙ্গলবার রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনে আয়োজিত ডিএমপি শিক্ষাবৃত্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

ডিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) মোঃ শাহাব উদ্দীন কোরেশী, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সিটিটিসি) মোঃ মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মীর রেজাউল আলম এবং অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

নগরবাসীর জানমালের নিরাপত্তা দিতে পুলিশ প্রস্তুত ও সতর্ক রয়েছে উল্লেখ করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে আমাদের নজরদারি রয়েছে। এ রায়কে কেন্দ্র করে সহিংসতার চেষ্টা হলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে। কোনও ধরনের অপতৎপরতা বরদাশত করা হবে না।

তিনি বলেন, আমরা কোনও পলিটিকস করি না। কিন্তু জনগণের জানমাল রক্ষা করা আমাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব। কেউ দেশের স্বাভাবিক নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার চেষ্টা করলে তাদের কঠোরভাবে দমন করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান কমিশনার।

২০১৩-১৪ সালের জ্বালাও-পোড়াও, নৈরাজ্যের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, সে সময়ে যে সহিংসতা চালানো হয়েছিল সেই দিন শেষ। ২০১৩-১৪ সালের পুনরাবৃত্তির চেষ্টা করলে সেই স্বার্থান্বেষী মহলকে কঠোর হাতে দমন করা হবে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে ডিএমপি শিক্ষাবৃত্তির সনদ ও নগদ অর্থ ডিএমপি সদস্যদের সন্তানদের হাতে তুলে দেয়া হয়। এবার ৮৫০ জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের ডিএমপি’র শিক্ষা বৃত্তি দেয়া হয়।

গত বছর ৬৫৯ জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে ৩৪ লাখ ৮৯ হাজার টাকা শিক্ষাবৃত্তি দেয়া হয়।

২০১৭ সালের পিইসি, জেএসসি, এসএসসি, এইচএসসি পরীক্ষায় ভাল রেজাল্ট করায় ও উচ্চশিক্ষা সহায়তা প্রদানের লক্ষে তিন ক্যাটাগরিতে ৮৫০ জন্য শিক্ষার্থীদের মাঝে ৫২ লাখ ৬১ হাজার টাকা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়।