ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:৩৩ ঢাকা, বুধবার  ২৪শে অক্টোবর ২০১৮ ইং

“গোপনে ওয়াসার পানির দাম বৃদ্ধি”

এবার ঘোষণা ছাড়াই গোপনে পানির দাম বাড়িয়েছে ঢাকা ওয়াসা। গ্রাহকদের জুলাই মাসের বিলের সঙ্গে পানি বাবদ অতিরিক্ত ৫ শতাংশ অর্থ গুনতে হচ্ছে । শুধু তাই নয় সুয়ারেজ বিলও একই হারে বাড়ানো হয়েছে।

আবাসিক ব্যবহারের জন্য আগে প্রতি এক হাজার লিটার পানির দাম ছিল ৭ টাকা ৭১ পয়সা। আগস্ট মাস থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৮ টাকা ৯ পয়সা। একইভাবে বাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য প্রতি এক হাজার লিটার পানির দাম ২৫ টাকা ৬৬ পয়সা থেকে বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে ২৬ টাকা ৯৪ পয়সা।
এ ব্যাপারে ঢাকা ওয়াসার বক্তব্য, মূল্যস্ফীতির সঙ্গে সামঞ্জস্য বিধানের লক্ষ্যে এবং উত্পাদন খরচ ও পরিচালন ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় সেবামূল্যের এ সমন্বয় করা হয়েছে।
রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার গ্রাহকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে,পানির বিল দ্বিগুণ করা হয়েছে মিটারবিহীন আবাসিক সংযোগে। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট হোল্ডিংয়ের বার্ষিক ঘরভাড়া দ্বিগুণ ধরে তার ৮ শতাংশ হারে বিল আদায় করছে ওয়াসা। কিন্তু ওয়াসা বলছে, মিটারবিহীন সংযোগের ক্ষেত্রেও পানির দাম ৫ শতাংশ হারে বাড়ানো হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার তাকসিম এ খান বলেন, পানির সেবামূল্য বাড়ানো হয়নি, সমন্বয় করা হয়েছে। হিসাব করলে দেখা যাবে দাম কমেছে। মূল্যস্ফীতির চেয়ে দাম বরং ২ টাকা কম নির্ধারণ করা হয়েছে।
ওয়াসার পানির জন্য যে বিল নির্ধারিত; একজন নাগরিকের কাছ থেকে তার সমপরিমাণ বিল আদায় করা হয় সুয়ারেজ লাইন ব্যবস্থাপনা বাবদ।
নগরবাসীর অভিযোগ, বিল বাড়লেও ঢাকা ওয়াসার সেবার মানে কোনো উন্নতি হয়নি। তারা বলছেন, অনেক এলাকায় ঠিকমতো পানি পাওয়া যায় না। পানিতে রয়েছে দুর্গন্ধ ও পোকামাকড়ের উপস্থিতি তো আছেই। আর সুয়ারেজ ব্যবস্থাআগের মতোই আছে।