ব্রেকিং নিউজ

রাত ৩:৪৪ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘গার্মেন্টস শ্রমিকদের সুস্থ রাখাটা আমাদের দায়িত্ব’- চুমকি

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, তৈরি পোশাক খাত দেশের জন্য সর্বোচ্চ বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে, আর এতে বেশীরভাগ শ্রমিকই নারী, তাই গার্মেন্টস শ্রমিকদের স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষ নজর রাখা জরুরি।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘গার্মেন্টস শ্রমিকদের স্বাস্থ্যঝুঁকি ও সমাধান’ বিষয়ক সেমিনারে আজ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, গার্মেন্টস শ্রমিকদের মধ্যে নারী ৮০ শতাংশ নারী, তাদের অধিকাংশই নিম্ন আয়ের পরিবার থেকে আসা এবং অশিক্ষিত। কিন্তু বিশ্ব বাজারের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য তাদেরকে কর্মদক্ষতা দিয়ে শিল্প সক্ষম করে গড়ে তুলতে হলে তাদের স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষ নজর রাখা একান্ত জরুরি।

তিনি আরো বলেন, তারা যেন আরও বেশি অবদান রাখতে পারেন, সেইজন্য এই শ্রমিকদের সুস্থ থাকা এবং তাদের সুস্থ রাখাটা আমাদের নৈতিক ও সামাজিক দায়িত্ব।

সেমিনারের আয়োজন করেছে- ব্রাউন ইউনির্ভাসিটি, গ্লোবাল হেলথ ইনিশিয়েটিভ ইউএসএ এবং চাইল্ড হেলথ অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ।

ব্রাউন ইউনির্ভাসিটির অধ্যাপক ড. রুহুল আবিদের সভাপতিত্বে সেমিনারে বক্তৃতা করেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিকাট।

ডা. আজাদ বলেন, কারখানার মালিকরা স্বাস্থ্য সমস্যার ব্যপারে বেশ সচেতন… কিন্তু কাজ হারানোর ভয়ে কখনো-কখনো শ্রমিকরা তাদের রোগের কথা লুকিয়ে রাখেন।

বার্নিকাট গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামের উদ্যোগ গ্রহণ করায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়কে ধন্যবাদ জানান।