Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:৩৪ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

পদ্মা সেতুর নিয়ে রুল

গাজীপুরে বোমা হামলা: ৬ জঙ্গির মৃত্যুদন্ড বহাল

গাজীপুর আইনজীবী সমিতি (গাজীপুর বার) ভবনে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবি’র বোমা হামলা মামলায় ৬ আসামীর মৃত্যুদন্ড বহাল রেখে ডেথ রেফারেন্স ও আপিলের ওপর রায় ঘোষণা করেছে হাইকোর্ট।

এছাড়া রায়ে দুই আসামির সাজা কমিয়ে দেয়া হয়েছে যাবজ্জীবন কারাদন্ড। দুজনকে খালাস দেয়া হয়েছে। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি জে.বি.এম হাসান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ রায় দেয়।

মৃত্যুদন্ড বহাল থাকা ৬ জঙ্গি হচ্ছে- এনায়েতুল্লাহ ওরফে ওয়ালিদ ওরফে জুয়েল, আরিফুর রহমান আরিফ ওরফে আকাশ, সাইদুর রহমান মুনসি ওরফে ইমন ওরফে পলাশ, আবদুল্লাহ আল সোহেল ওরফে জাহিদ ওরফে আকাশ, নিজামুদ্দিন নিজাম এবং মো. তৈয়বুর রহমান।

সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে মসিদুল ইসলাম মাসুদ ওরফে ভুট্টো এবং আদনান সামী ওরফে আম্মার ওরফে জাহাঙ্গীরকে। খালাস পেয়েছে মো. আশরাফুল ইসলাম এবং শফিউল্লাহ ওরফে তারেক ওরফে আবুল কালাম।

এর আগে উভয়পক্ষের শুনানি শেষে গত ২০ জুলাই আজ বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণার দিন ধার্য করে আদেশ দেয়া হয়। ২০০৫ সালের ২৯ নভেম্বর গাজীপুর জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনের ২ নম্বর হলরুমে বোমা হামলা চালায় জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সদস্যরা। এ হামলায় চার আইনজীবী আমজাদ হোসেন, গোলাম ফারুক, নুরুল হুদা ও আনোয়ারুল আজিমসহ আটজন নিহত হন। ঘটনাস্থলে মারা যায় জেএমবির সদস্য আসাদ ওরফে জিয়া।

ঘটনার দিনই বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় মামলা দায়ের করে পুলিশ। মামলার এজাহারে জেএমবির শীর্ষ নেতা শায়খ আব্দুর রহমান, আতাউর রহমান সানীসহ অজ্ঞাতনামাদের আসামি করা হয়। ২০০৭ সালের ৪ জুলাই ১০ জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। মামলায় ৭০ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করে ঢাকার একটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ২০১৩ সালের ২০ জুন ১০ আসামিকে মৃত্যুদন্ড দিয়ে রায় দেয়।