ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৩৯ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

গণতন্ত্র ও গণমাধ্যম পরস্পরের পরিপূরক : স্পিকার

স্পিকার ও সিপিএ চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, গণতন্ত্র ও গণমাধ্যম পরস্পরের পরিপূরক।দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে আরো শক্তিশালী করতে গণমাধ্যমকে দায়িত্বশীল ও কার্যকর ভূমিকা পালনের আহবান জানিয়েছেন। ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের (ডিএসইসি) ১৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহবান জানান।
স্পিকার বলেন, জনমত গঠনে গণমাধ্যমের ভূমিকা অপরিসীম। তাই বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে জনমত গঠনে এবং গণতন্ত্রের উন্নয়নে গণমাধ্যম কর্মীদের কাজ করতে হবে। সাংবাদিকতা ও সংবাদ সম্পাদনা একটি বিশেষায়িত পেশা। এ পেশায় নিয়োজিতদের জন্য বিশেষ জ্ঞান ও দক্ষতার প্রয়োজন। তিনি গণমাধ্যমে রিপোর্টার ও সাব-এডিটর হিসেবে নারীদের আরও বেশী সম্পৃক্ত হওয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির প্রসারের ফলে সাংবাদিকতায় বৈচিত্র্যের পাশাপাশি চ্যালেঞ্জও বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে টিকে থাকতে হলে প্রযুক্তিনির্ভর সাংবাদিকতায় আরো দক্ষ হতে হবে।
তিনি বলেন, সংবাদ পরিবেশনে সাব-এডিটরদের ভূমিকা অনন্য এবং অনস্বীকার্য। তাই সংবাদ সঠিকভাবে তুলে ধরে জনগণের প্রত্যাশা পূরণে এবং সংবাদপত্রের সুনাম বৃদ্ধিতে সাব-এডিটরদের সঠিক ভূমিকা পালন করতে হবে ।
ডিএসইসির সভাপতি নাছিমা আক্তার সোমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ও ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান  চৌধুরী, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান, রংপুর সিটি কর্পোরেশন মেয়র সরফুদ্দিন আহমদে ঝন্টু, দৈনিক ইত্তেফাকের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমিমা  হোসেন , ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মাহফুজুর রহমান ও ডিএসইসির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বক্তব্য রাখেন।
ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, শক্তিশালী ও কার্যকর গণতন্ত্রের জন্য স্বাধীন গণমাধ্যম অপরিহার্য। যে সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে বিদেশে দেশের গণতান্ত্রিক ভাবমূর্তি উর্ধ্বে তুলে ধরার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তখন সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গী গোষ্ঠি তা ব্যহত করার অপচেষ্টা করছে। তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের এসব অপশক্তির অপচেষ্টা রুখে দিতে জনমত গঠনে কার্যকর ভূমিকা পালন করার জন্য আহবান জানান।