Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:০৯ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

‘গণতন্ত্রে সহিংসতার কোন স্থান নেই’

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

বাংলাদেশে চলমান সহিংস রাজনৈতিক পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ সমাধান চেয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি। একই সঙ্গে তিনি সব রাজনৈতিক দলের ‘নির্বিঘ্নে মত প্রকাশের’ অধিকার নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির প্রতি ইঙ্গিত করে সার্বিক মানবাধিকার রক্ষায় গঠনমূলক ভূমিকা পালনের জন্য মিডিয়ার স্বাধীনতা নিশ্চিত করারও আহ্বান জানান মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওয়াশিংটনে যুক্তরাষ্ট্র সফররত পররাষ্ট্র মন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন। একাধিক কূটনৈতিক সূত্রে এ তথ্য মিলেছে। বৈঠকে জন কেরি দুটি বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। তিনি বলেছেন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলে নিরীহ মানুষকে টার্গেট করার কৌশল কোনভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়। একই ভাবে ‘গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ’ এ  রাজনৈতিক মত প্রকাশে বাধা প্রধানও উচিত নয়। চলমান রাজনৈতিক সহিংসতার নিন্দা জানিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনৈতিক এ সঙ্কটের দ্রুত সমাধান প্রতাশা করেছেন। এদিকে আজ দিনের শুরুতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দুই পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বৈঠকের বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে বাংলাদেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্তিতি নিয়ে আলোচনায় দুই নেতাই একমত হয়েছেন ‘গণতন্ত্রে সহিংসতার কোন স্থান নেই’। রাজনৈতিক কিংবা আদর্শের নামে নির্বোধ সহিংসতা এবং চরমপন্থাকে নিন্দা জানান তারা। দুই নেতাই দ্বিপক্ষীয় বিভিন্ন ইস্যুতে এক সঙ্গে কাজ করতে সম্মত হয়েছেন জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জন কেরি বাংলাদেশের জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে গভীর আগ্রহ ব্যাক্ত করেছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী যুক্তরাষ্ট্রে থাকা বঙ্গবন্ধুর হত্যা মামলার দন্ডাদেশ প্রাপ্ত খুনি রাশেদ চৌধুরীকে ফিরিয়ে দিতে জন কেরির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রীকে ঢাকা সফরের আহ্বান জানালে জন কেরি ইতিবাচক মনোভাব ব্যাক্ত করেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম জিয়া উদ্দিন, পররাষ্ট্র সচিব এম শহিদুল হক  ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (আমেরিকাস) মাহফুজুর রহমান এবং মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সহকারি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী (দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক) নিশা দেশাই বিসওয়াল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য হোয়াইট হাউস কাউন্টারিং ভায়ালেন্স এক্ট্রিমিজম সামিটে যোগ দিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাহমুদ আলী ওয়াশিংটন সফর করছেন। বৃহস্পতিবার চরমপন্থা বিরোধী ওই সম্মেলনে মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নেন তিনি। সম্মেলনের সাইড লাইনে দুই পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বৈঠক হয়।

FOLLOW US: