ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:৫৩ ঢাকা, সোমবার  ২২শে অক্টোবর ২০১৮ ইং

গণতন্ত্রে যুদ্ধাপরাধী, জঙ্গী ও অগ্নিসংযোগকারীদের কোন স্থান নেই : তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, গণতন্ত্রকে অর্থবহ করার লক্ষ্যে যুদ্ধাপরাধী, অগ্নিসংযোগকারী ও জঙ্গীদের বয়কট করতে হবে। অন্যথায় গণতন্ত্র ও রাজনীতি বিপন্ন হবে। গণতন্ত্রে তাদের কোন স্থান নেই।
জাতীয় প্রেসক্লাবে সোমবার সাব-এডিটর কাউন্সিল আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাব-এডিটররা সাংবাদিকতার একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুসঙ্গ। তাঁরা হচ্ছেন মুখ্য গেটকিপার।
তিনি বলেন, কোন বিষয়টি সংবাদ হবে সে ব্যাপারে তারা কি মনে ভাবেন সেটির ওপর অনেকে নির্ভর করেন। তাঁদের মাধ্যমেই জাতি তথ্য পেয়ে থাকে।
তথ্যমন্ত্রী সার্বিক বিষয় বিবেচনায় রেখে যথাযথ নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করার জন্য সাব-এডিটরদের অনুরোধ জানান।
ঘাসানুল হক ইনু আশা প্রকাশ করেন, যুদ্ধাপরাধী ও অগ্নিসংযোগকারীদের শাস্তির দাবিতে সকল সাংবাদিক ও জাতি ঐক্যবদ্ধ হবে। কারণ, অগ্নিসংযোগকারী ও যুদ্ধাপরাধীদের কাছে রাজনীতি জিম্মি হতে পারে না।
তিনি বলেন, যারা ১৯৭১ সালে রেহাই পেয়েছিল তারাই ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে এবং ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট শেখ হাসিনার ওপর হামলা করেছে। আমরা শিক্ষা পেয়েছি। আমরা ভবিষ্যতে কোন অপরাধীকে রেহাই দিবো না। আমরা তাদের সকলের বিচার করবো।
তিনি সংবাদকর্মীদের আশ্বাস দেন যে, গণমাধ্যমের সর্বোত্তম স্বার্থ রক্ষার বিষয়টি সরকারের বিবেচনায় রয়েছে। সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাষ্ট গঠন সহ তাদের কল্যাণে সরকার ইতোমধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে।
তিনি দুঃস্থ ও অভাবী সাংবাদিকদের তালিকা দেয়ার জন্য সাব-এডিটরদের প্রতি আহ্বান জানান। অফিসের জায়গা সম্পর্কে তিনি বলেন, কোন খাস ভূমি সম্পর্কে জানা থাকলে বিষয়টি মন্ত্রণালয়কে অবহিত করার পরামর্শ দেন।
তিনি বলেন, ভবিষ্যতে সাংবাদিক সমাজের কল্যাণ এবং তাদের পেশাগত নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে।
সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম চৌধুরী, বৈশাখী টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক মনজুরুল আহসান বুলবুল, বিএফইউজে মহাসচিব আবদুল জলিল ভুইয়া, ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ, সাব-এডিটর কাউন্সিলের সহ-সভাপতি কে এম শহীদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। কাউন্সিলের সভাপতি নাসিমা আক্তার সোমা এতে সভাপতিত্ব করেন।