ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৬:০৯ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ

গণতন্ত্রের নয়, মানুষ পুড়িয়ে মারার প্রতীক গুলশান বিএনপি অফিস : ড. হাছান

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির গুলশান কার্যালয় গণতন্ত্রের নয় বরং দেশের নিরীহ মানুষকে পেট্রলবোমা মেরে পুড়িয়ে মারার প্রতীক।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিএনপির গুলশান কার্যালয়কে গণতন্ত্রের প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করেছেন। অথচ এই কার্যালয় থেকেই সরকার বিরোধী আন্দোলনের নামে দেশের মানুষকে পুড়িয়ে মারার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। সেসময় দীর্ঘ ৯৩ দিন ধরে এ কার্যালয়ে বসেই বেগম খালেদা জিয়া দেশের মানুষকে পুড়িয়ে মারার নির্দেশ দিয়েছিলেন।’

তিনি বলেন, বিএনপির এই কার্যালয়ে আরো অনেক আগে তল্লাশী চালানোর দরকার ছিল। সরকার আদালতের নির্দেশ নিয়ে অনেক দেরীতে হলেও অভিযান চালিয়েছে।

বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং আওয়ামী লীগের মুখপাত্র ড. হাছান মাহমুদ আজ দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৭ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।
‘দল গুছিয়ে মাঠে নামবেন খালেদা জিয়া’ বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ড. হাছান বলেন, বিএনপির দল গোছানোর কার্যক্রম দেশের মানুষ ভালোভাবেই দেখতে পাচ্ছে। কেননা বিএনপি যেখানেই কোন সভা-সমাবেশ করতে যাচ্ছে সেখানেই তারা মারামারি করছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে দেশের নিরীহ মানুষকে হত্যা করায় দেশের জনগণ তাদের লাল কার্ড দেখিয়েছে। আবার দেশে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্ঠা করলে দেশের মানুষ এবার তাদের ‘ডাবল লালকার্ড’ দেখাবে।

বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উপদেষ্টা ও আওয়ামী লীগ নেতা হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এডভোকেট নাভানা আক্তার এমপি, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি মো. জিন্নত আলী জিন্নাহ ও সাধারণ সম্পাদক শাহদাত হোসেন টয়েল প্রমূখ।