Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৩০ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বৃহস্পতিবার সকালে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু নেপালের প্রধানমন্ত্রী খড়গ প্রসাদ শর্মা ওলী ’র সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাত করেন। পিআইডি

গণতন্ত্রের উৎকর্ষ সাধনের পর্যায়ে বাংলাদেশ ও নেপাল: তথ্যমন্ত্রী

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নে ‘গঙ্গা-হিমালয়-বদ্বীপ সমন্বিত পরিকল্পনা’র প্রয়োজনের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে বৃহস্পতিবার বিকেলে নেপালী কংগ্রেস দলের ১৩তম মহাসম্মেলনে আমন্ত্রিত অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এ বিষয়ে কাজ করার জন্য নেপালী কংগ্রেস সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান।
কাঠমান্ডু থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসসূত্রে আরো জানানো হয়, তথ্যমন্ত্রী নেপালী কংগ্রেসের কিংবদন্তী নেতা বিশ্বেশ্বর প্রসাদ কৈরালা), কে পি ভাট্টারি, গিরিজা প্রসাদ কৈরালা এবং সুশীল কৈরালাসহ সকল প্রয়াত নেতা-কর্মীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
তিনি বলেন, ‘সভ্যতার এ ক্রান্তিলগ্নে দেশগুলোর উন্নয়নে প্রয়োজন স্থানীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহায়তার একটি ত্রিমাত্রিক সমন্বয়।’
হাসানুল হক ইনু এসময় নেপালী কংগ্রেস দলের নেতৃবৃন্দ ও হাজার হাজার সদস্যকে রাজতন্ত্রের স্বৈরশাসন থেকে মুক্ত করে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নেপালকে এগিয়ে নেবার ঐতিহাসিক সংগ্রামের সাফল্যের জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশ ও নেপাল উভয়েই গণতন্ত্রের উৎকর্ষ সাধনের পর্যায়ে রয়েছে।’
বাংলাদেশের এ সমাজতান্ত্রিক নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন আমরা স্বৈরশাসন ও সাম্প্রদায়িকতার জঞ্জাল থেকে দেশকে মুক্ত করার কাজ অব্যাহত রেখেছি। খুনী যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চলছে এবং তথ্যপ্রযুক্তি ও গণমাধ্যমের প্রসারের সাথে সাথে নিম্ন থেকে মধ্য আয়ের পথে এগিয়ে চলছে রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন হওয়া বাংলাদেশ।’
নেপালী কংগ্রেসের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট রাম চন্দ্র পড়েল সহ দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও সদস্য এসময় উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু নেপালের প্রধানমন্ত্রী খড়গ প্রসাদ শর্মা ওলী ’র সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাত করেন। নেপালের প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রীয় বাসভবনে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে দু’দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরো এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে আন্ত:সীমান্ত পণ্য পরিবহণ, বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতা, পর্যটনের প্রসার ও দু’দেশের মধ্যে তথ্য ও সংবাদ আদান প্রদানের বিষয়ে তারা আলোচনা করেন।
নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস, জাসদের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শামীম আহমেদ, বাংলাদেশ দূতাবাসের দূতালয় প্রধান মোহাম্মদ বারিকুল ইসলাম এবং নেপালের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
নেপালের প্রধানমন্ত্রী যিনি কে পি ওলী নামে সমধিক প্রসিদ্ধ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তথ্য ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। গত বছর নেপালের ভয়াবহ ভূমিকম্পে দ্রুত সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ সরকার ও জনগণের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ জানান তিনি।
এর পরপরই নেপালী কংগ্রেস দলের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট রাম চন্দ্র পড়েল এর সাথেও সৌজন্য সাক্ষাত করেন তথ্যমন্ত্রী।
নেপালী কংগ্রেস দলের ১৩তম মহাসম্মেলনে বক্তব্য দেয়ার উদ্দেশ্যে হাসানুল হক ইনু বুধবার ২ মার্চ কাঠমান্ডু পৌঁছান। শুক্রবার ৪ মার্চ তথ্যমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা।বাসস