শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:২৮ ঢাকা, রবিবার  ১৬ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

খুলে দেয়া হয়েছে ইস্কাটন-মৌচাক ফ্লাইওভার

উদ্বোধনের পর যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে বহুল প্রতিক্ষিত ইস্কাটন-মৌচাক ফ্লাইওভার।

বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশারফ হোসেন ফ্লাইওভারের ইস্কাটন-মৌচাক অংশের উদ্বোধন করেন।

নগরীর বৃহত্তর এই অঞ্চলের যানজট নিরসনে ইস্কাটন থেকে মৌচাকমুখী যানবাহন ট্রাফিক সিগনাল ও যানজট এড়িয়ে চলাচলের জন্য নির্মিত ফ্লাইওভারটি দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য প্রতীক্ষিত ছিল।

এক কিলোমিটার দীর্ঘ এই ফ্লাইওভারটি মালিবাগ-মৌচাক প্রকল্পের একটি অংশ। রাজধানীর মালিবাগ, মৌচাক, মগবাজার, ইস্কাটনসহ বিশাল একটি এলাকার বহুমুখী সড়ক যোগাযোগের উন্নয়নের কথা বিবেচনা করে বাস্তবায়নাধীন এই ফ্লাইওভারের নকশা করা হয়েছে।

ফ্লাইওভার উদ্বোধনকালে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী বলেন, ফ্লাইওভারটি ঢাকা শহরের যান চলাচলে অনেকটা সহায়ক হবে, তবে নগরীর যানবাহন চলাচল ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও নিরবিচ্ছিন্ন পরিবহন নিশ্চিত করতে আওয়ামী লীগ সরকারের নেয়া নগর পরিবহন ব্যবস্থার মাস্টারপ্ল্যানটি বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন।

এ সময় তিনি আগামী বছর জুন-জুলাইয়ের মধ্যে মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। তবে ফ্লাইওভারের এফডিসি থেকে সোনারগাও হোটেল পর্যন্ত সাড়ে ৪শ’ মিটার অংশ, মগবাজার-মৌচাক সমন্বিত ফ্লাইওভার প্রকল্পের সম্প্রসারিত অংশের নির্মাণ কাজ এই বছর ডিসেম্বরের মধ্যেই যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব আবদুল মালেক, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি)-এর প্রধান প্রকৌশলী শ্যামা প্রসাদ অধিকারীসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।

গত ৩০ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের সাতরাস্তা থেকে রমনা হলিফ্যামিলি পর্যন্ত ৮ দশমিক ৭০ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রথম অংশের উদ্বোধন করেন।

প্রকল্প নকশা অনুযায়ী দুইটি রেল সিগনাল এড়িয়ে সাতরাস্তা, মগবাজার, মৌচাক, শান্তিনগর, মালিবাগ অংশ দিয়ে সহজে ওঠা-নামার মাধ্যমে ফ্লাইওভারটি নগরীর উত্তর ও দক্ষিণাংশে যাতায়াতে সহায়ক হবে।

নগরীর মগবাজার, মৌচাক ও মালিবাগ এলাকার যানজট নিরসনে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরে তত্ত্বাবধানে ২০১৩ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি ফ্লাইওভারটির নির্মাণ শুরু হয়ে।