ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:৪০ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৯শে জুলাই ২০১৮ ইং

সুন্দরবনের একাংশ

খুলনার কয়রায় হড্ডা গ্রামের কাছে সুন্দরবনে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ১৩ ডাকাত নিহত

 

শীর্ষ মিডিয়া ৫ অক্টোবর ঃ  ভোররাতে পাইকগাছা উপজেলার ঝিলবুনিয়া গ্রামের এক কলেজ শিক্ষককে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে সুন্দরবনের দিকে পালানোর সময়  পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত হন। এ সময় ১৩ জনকে আটক করে পুলিশ। তারা ডাকাত দলের সদস্য বলে তখন পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়। সকালে খুলনার পাইকগাছায় আটক হওয়ার পর দুপুরে সুন্দরবনে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আরও ১১ জন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে একই দিনে ঐ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৩ জন নিহত হলেন।  খুলনা জেলা পুলিশ  জানায় রোববার দুপুর দেড়টার দিকে কয়রা উপজেলার হড্ডা গ্রামের কাছে সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এই ১১ জন নিহত হন
 
ঐ ১৩ জনের মধ্যে ১১ জনকে নিয়ে পুলিশ দুপুরে সুন্দরবনে অভিযানে যায় বেলা দেড়টার দিকে  হড্ডা গ্রামের কাছে সুন্দরবনে কাশেম বাহিনীর প্রধান কাশেমকে গ্রেপ্তার ও অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। সেখানে কাশেম বাহিনীর লোকজন গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে পালানোর সময় ১১ জন গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়।
এ ঘটনায় পাইকগাছা থানার ওসি শিকদার আক্কাস আলীসহ পুলিশের ছয় সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানান হয়।  তাদের ছররা গুলি লেগেছে  আহত পুলিশ সদস্যদের পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।   ঘটনাস্থল থেকে ১৭টি বন্দুক ও ৫৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানানো হয়।