Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:২৩ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ

‘খালেদা স্বামীর পদাঙ্ক অনুসরণ করে হত্যার মিশনে ছিলেন এবং আছেন’

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, স্বামীর পদাঙ্ক অনুসরণ করে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থেকে হত্যার মিশনে ছিলেন, ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার পরও হত্যার মিশনে আছেন।

আজ শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ’ আয়োজিত ‘বিএনপি একটি সন্ত্রাসী সংগঠন-কানাডা কোর্ট- দেশ ও জাতীর কল্যাণে আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সবুজবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে সভায় অ্যাডভোকেট নাভানা আক্তার এমপি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন টয়েল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

‘সরকার হত্যার মিশনে আছে’ বেগম খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্যের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আপনার স্বামী যখন ক্ষমতায় ছিলেন হত্যার মিশনে ছিলেন। আপনিও যখন ক্ষমতায় ছিলেন স্বামীর পদাঙ্ক অনুসরণ করে হত্যার মিশনে ছিলেন। আর ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার পর গত কয়েক বছরে হত্যার মিশনে আছেন তা সমগ্র পৃথিবী জানে।’

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান হত্যাকান্ডের মধ্যদিয়ে ক্ষমতা দখল করেছিলেন। ক্ষমতাকে নিষ্কণ্টক করার জন্য সেনাবাহিনীর হাজার হাজার জওয়ানকে হত্যা করেছিলেন। মাসের পর মাস সান্ধ্য আইন জারি করে সারাদেশে ত্রাস সৃষ্টি করেছিলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের হত্যা করেছিলেন। খালেদা জিয়া ১৯৯১ ও ২০০০ সালে ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগের ২২ হাজার নেতা-কর্মী ও সমর্থককে হত্যা করেছেন।

অনুষ্ঠানে হাছান মাহমুদ কানাডার আদালতের দেয়া রায়ের কপি সাংবাদিকদের শুনিয়ে বলেন, বিএনপি আর যাই হোক, খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে।