ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:২৫ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

খালেদা-নিজামীসহ ২১ আসামিকে হাজিরের নির্দেশ

দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ১৮ জুলাই দিন ধার্য করেছেন আদালত। একই সঙ্গে এই মামলায় খালেদা জিয়া ছাড়াও ধার্য দিনে অপর ২০ আসামিকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন আদালত। মামলার অন্যতম আসামি যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মতিউর রহমান নিজামীকেও কারগার থেকে আদালতে হাজির করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়।

বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর বিচারক আবু আহমেদ জমাদার এ দিন ধার্য করেন।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী।

মামলার পরদিনই খালেদা জিয়া ও আরাফাত রহমান কোকোকে গ্রেফতার করে সেনা সমর্থিত ফখরুদ্দিনের তত্ত্বাবধায়ক সরকার। এরপর ১৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয় জরুরি ক্ষমতা আইনে। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়।

এতে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

২০০৭ সালের পরে ২০১৫ সালে মামলাটি সচলের উদ্যোগ নেয় দুদক। ২০১৫ সালের ১৯ এপ্রিল শুরু হয় রুলের শুনানি। এরপর ২০১৫ সালের ৫ আগস্ট এই মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে খালেদা জিয়ার দায়ের করা রিট খারিজ করেন হাইকোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান ও বিচারপতি আবদুর রবের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

এরপর বিগত চারদলীয় জোট সরকারের মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম শামসুল ইসলাম, এম কে আনোয়ার, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মতিউর রহমান নিজামীসহ ২৪ জনকে এ মামলার আসামি করা হয়।

মামলার ২৪ জন আসামির মধ্যে খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো, সাবেক অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান, বিএনপির সাবেক মহাসচিব আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া মারা যাওয়ায় এখন আসামির সংখ্যা ২১ জনে দাঁড়িয়েছে।