Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:১০ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

খালেদা জিয়া ও মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম
খালেদা জিয়া ও মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম

‘খালেদা দেশের মানুষ হত্যায় নীরব থাকে কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের বেলায় শোক জানায়’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও গুপ্তহত্যার প্রতিবাদে দেশের শান্তিপ্রিয় মানুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে জেগে ওঠার আহবান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘দেশের শান্তিপ্রিয় সর্বস্তরের মানুষকে বলবো, আপনারা জেগে উঠুন। বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে আপনারা ঐক্যবদ্ধ হোন। যেমনটা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ’৭১ সালে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলেন, তেমনি এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হোন।’

নাসিম আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

বিএনপি-জামায়াত জোটের গুপ্তহত্যার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় ১৪ দল ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসূচি সফল করার লক্ষে এই বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। আগামী ১৯ জুন রাজধানীর গাবতলী থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত বিকেল ৩টা থেকে ৪ পর্যন্ত এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি, খাদ্যমন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এস এম কামাল হোসেন, নগর আওয়ামী লীগ নেতা শেখ বজলুর রহমান, ডা. দিলীপ কুমার রায়, আব্দুল হক সবুজ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, কেন্দ্রীয় ১৪ দল একটি অসাম্প্রদায়িক জোট। এই জোটের ঐক্য অটুট আছে, ভবিষ্যতেও অটুট থাকবে। যতদিন পর্যন্ত বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক হিসাবে গড়ে তুলতে না পারবো ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই জোট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকবে। প্রয়োজনে ১৪ দলীয় জোটকে আরও সম্প্রসারণ করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের অরল্যান্ডো শহরের পালস ক্লাবে হামলা ঘটনায় বিএনপি চেয়ারপাসর্নের শোক প্রকাশ করার প্রসঙ্গ টেনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে জঙ্গী হামলায় মানুষ নিহত হলে তিনি শোক জানান, কিন্তু নিজ দেশে নিরিহ মানুষ হত্যা হলে নীরব থাকেন। এটা কোন ধরনের রাজনীতি? আসলে তিনি এই সকল হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত। তাই, নিন্দা না জানিয়ে সরকারকে দোষারোপ করছেন।
কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মধ্য কোন অনৈক্য নেই দাবী করে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দল ঐক্যবদ্ধ আছে এবং থাকবে। ১৪ দল ঐক্যবদ্ধ ভাবে বিএনপি-জামায়াতের সকল ষড়যন্ত্র মোকবেলা করবে।

গুপ্তহত্যা বন্ধ করতে বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনি গুপ্তহত্যা বন্ধ করুন, তা না হলে দেশের মানুষ আপনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।

মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানিয়ে কামরুল ইসলাম বলেন, জঙ্গীদের বিরুদ্ধে আমাদের যে যুদ্ধ শুরু হয়েছে, তা থেকে পিছিয়ে আসার কোন সুযোগ নেই। তাই আমাদের সবাইকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আমাদের এই যুদ্ধ সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে।