ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:২৮ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

খালেদা জিয়া
২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

সমন জারির পরও আদালতে হাজির না হওয়ায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে নড়াইলের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সদর আমলি আদালতের বিচারক জাহিদুল আজাদ এই পরোয়ানা জারি করেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী আবদুস সালাম খান গণমাধ্যমকে জানান, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর খালেদা জিয়াকে ৩১ অক্টোবরের মধ্যে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর ঢাকায় মুক্তিযোদ্ধাদের একটি সমাবেশে খালেদা জিয়া প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাধীনতাযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা ৩০ লাখ নিয়ে বিতর্ক আছে বলে মন্তব্য করেন। সমাবেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ইঙ্গিত করে

খালেদা জিয়া বলেন, তিনি স্বাধীনতা চাননি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন। স্বাধীন বাংলাদেশ চাননি। খালেদা জিয়ার এই বক্তব্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে মামলার বাদী নড়াইলের নড়াগাতী থানার চাপাইল গ্রামের রায়হান ফারুকী ২৪ ডিসেম্বর সদর আমলি আদালতে মামলা করেন। বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে ২০১৬ সালের ২ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বিচারিক তদন্তের নির্দেশ দেন।