ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫১ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

খালেদাকে মানুষ পোড়ানোর কৈফিয়ত দিতে হবে : তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, নির্বাচন ও গণতন্ত্র নিয়ে কথা বলার আগে বেগম খালেদা জিয়াকে আগুনযুদ্ধ, নাশকতা-অন্তর্ঘাত ও মানুষ পোড়ানোর কৈফিয়ত দিতে হবে।
তিনি বলেন, ‘এটা সুস্পষ্ট যে, বেগম খালেদা জিয়া স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিয়ে পানিঘোলা ও ষড়যন্ত্রের জাল বুনার চেষ্টা করছেন। নির্বাচন কখনই খালেদা জিয়ার এজেন্ডা নয়। তিনি ইচ্ছে মতো নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছেন, আগুনযুদ্ধ করেছেন, মানুষ পুড়িয়ে মেরেছেন শুধুমাত্র ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গণতন্ত্রের পথ থেকে সরে গিয়ে অস্বাভাবিক পথে হেঁটে।’
সম্প্রতি বেগম খালেদা জিয়ার পৌর নির্বাচন নিয়ে বিরূপ মন্তব্য প্রসঙ্গে আজ সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
হাসানুল হক ইনু বলেন, কোন নির্বাচনই সরকারের ইচ্ছে মতো হয়না। নিয়ম অনুযায়ী নির্বাচন হয় এবং সরকার তার সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করে। নির্বাচন কমিশন সরকারের ইচ্ছা-অনিচ্ছার উপর নির্ভর করে না। যেমন, নির্বাচন কমিশন স্পষ্ট বলে দিয়েছে। দেশের এমপি, মন্ত্রীরা নির্বাচনী প্রচারনায় অংশ নিতে পারবেন না।
তিনি বলেন, ‘গত সাড়ে ছয় বছরে বিএনপিসহ অন্যান্য দলগুলো সকল স্থানীয় সরকার নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। তাদের প্রার্থীরা কখনও হেরেছেন, কখনো জিতেছেন। বিএনপির কথা হলো জিতলে নির্বাচন ভালো, হারলে খারাপ।’
বিএনপির প্রার্থীদের হয়রানি করা হচ্ছে বেগম খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রকৃত সত্য হচ্ছে নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রার্থীরা যারা আগুন যুদ্ধে জড়ানোর অভিযোগে অভিযুক্ত কিন্তু সাজা হয়নি বলে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন, তাদেরকে প্রশাসন কোন বাধা দেয়নি। কিন্তুকখনই নির্বাচনকে অপরাধ থেকে বাঁচার হাতিয়ার বা মামলা থেকে রেহাই পাবার কৌশল হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না।
তিনি বলেন, ‘নির্বাচন অপরাধ থেকে বাঁচার দরকষাকষির হাতিয়ার নয়, নির্বাচন নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করবেন না।’