Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৫৮ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

খালেদাকে নাশকতার দায়ে গ্রেফতার করুন

ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম অবরোধ ও হরতালের নামে সকল নাশকতার হুকুমের আসামী হিসেবে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি আজ সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মুক্তিযোদ্ধ প্রজম্ম লীগের উদ্যোগে ‘বিএনপি-জামায়াতের অবরোধ ও হরতালের নামে নাশকতা’র প্রতিবাদে এবং সকল নাশকতার হুকুমের আসামী হিসেবে বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের দাবীতে আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহবান জানান।
সংগঠনের সভাপতি ফাতেমা জলিল সাথীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, দফতর সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মিলন, সদস্য হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজম্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আমিনুল ইসলাম স্বপন।
মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের অবরোধ ও হরতাল কর্মসূচীর নামে সকল নাশকতার হুকুমের আসামী হিসেবে বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানাই।’
তিনি বলেন, যারা এসব নাশকতার পরিকল্পনাকারী এবং অর্থের যোগানদাতা- তাদেরও গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার জন্য তিনি সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মায়া বলেন, বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলা থেকে রেহাই এবং তার ছেলে তারেক রহমানকে রক্ষা করার জন্য দেশের ভাগ্য নিয়ে ষড়যন্ত্র করছেন।
তিনি বলেন, ‘তার এ ষড়যন্ত্রকে সফল করার জন্য পাকিস্তানী গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই অর্থের যোগান দিচ্ছে। এই গণতান্ত্রিক সরকারের সময় তার এ ষড়যন্ত্র সফল হবে না।
মায়া বলেন, দেশে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনকারীদের বিচার কেউ থামাতে পারবে না। আর এতিমদের অর্থ আত্মসাতের মামলায়ও তার বিচার হবে।
বিএনপিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, যে দলের প্রধান এতিমদের অর্থ আত্মসাত করে, ভাইস চেয়ারম্যান রাজনীতি না করার মুচলেকা দিয়ে বিদেশে অবস্থান করে, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব জাতীয় প্রেসক্লাবে আত্মগোপন করে এবং যুগ্ম-মহাসচিব হাসপাতালের ওয়াশরুমে যাওয়ার কথা বলে পালিয়ে যায়- তাদের পক্ষে আন্দোলন করা সম্ভব নয়।
মায়া বলেন, নাশকতার মাধ্যমে ক্ষমতায় যাওয়ার ষড়যন্ত্র যারাই করুন- তাদের ষড়যন্ত্র কখনো সফল হবে না।
তিনি বলেন, দেশে ২০১৯ সালের ৫ জানুয়ারির আগে কোন জাতীয় নির্বাচন হবে না। সংবিধান অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।