ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:৩৪ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

খালেদাকে জনগণের টাকা ফেরত দিয়ে ক্ষমা চাইতে বললেন তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ নেতা হাসানুল হক ইনু খালেদা জিয়ার কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, দেশে-বিদেশে আর কোথায় টাকা লুকিয়ে রেখেছেন? জনগণের কষ্টার্জিত সেই টাকা ফেরত দিয়ে দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চান, তারপর সরকারের সমালোচনা করুন-আন্দোলনের হুমকি দিন।  তথ্যমন্ত্রী আজ শনিবার দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরায়ু-মুখ ও স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে ক্যাম্পের উদ্বোধনের আগে সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া যদি আরেকবার ক্ষমতায় যায় তাহলে দেশকে তারা জঙ্গিবাদী ও তারেক রহমানের দুই নং হাওয়া ভবনের কাছে লিজ দিয়ে দেবে। কিন্তু আমরা এই দেশকে খালেদা ও তারেকের দূষ্কর্ম ও ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা করব।

তিনি আরো বলেন, ‘অতীতে বিএনপি দূর্নীতি ও জঙ্গিবাদকে রাষ্ট্রীয়ভাবে মদদ ও পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে জনগণের টাকা লুট করেছে। ঐ আমলে দেশে সংঘবদ্ধভাবে দূর্নীতি হয়েছে। অথচ বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়ে দূর্নীতিবিরোধী অভিযান জোরালোভাবে পরিচালিত হচ্ছে। সরকারের মন্ত্রী, এমপি কিংবা আমলাদের কেউই দূর্নীতি করে পার পাচ্ছে না, পাবেও না। খালেজা জিয়া ও শেষ হাসিনার সরকারের মধ্যে এটাই মৌলিক পার্থক্য। দেশে আজ ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে। বছরের শুরুতে শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বই দেওয়া হচ্ছে। সার, বীজ, কীটনাশক ও অন্যান্য কৃষি উপকরণ সহজলভ্য করে দেশের কৃষি খাতকে শক্তিশালী অবস্থানে দাড় করানো হয়েছে। যোগাযোগ, বিদ্যুৎ ও তথ্য প্রযুক্তি খাতেও এই সরকারের সাফল্য অভাবনীয়।

ইনু বলেন, খালেদা সরকার নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বাড়িয়ে জনগণের কাছ থেকে মুনাফা লুটে সেই টাকা বিদেশে পাচার করেছে। আমরা খালেদা-তারেক-কোকোর আমলের ঐ সরকারের পাচার করা অর্থ ফেরত আনা শুরু করেছি। আর এ কারণেই অশান্তি ও সন্ত্রাসবাদী নেত্রী খালেদা জিয়া বেসামাল হয়ে কখনও সরকার উৎখাত ও তথাকথিত আন্দোলনের হুমকি দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় নারী জোট কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক আফরোজা হক রীনা, কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সাধারণ সম্পদক আব্দুল আলীম স্বপন, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ ইফতেয়ার মাহমুদ, কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

Like & share করে অন্যকে দেখার সুযোগ দিন