ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:২২ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ক্ষমতা থেকে সরে দাড়ান : জামায়াত

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

একগুঁয়েমি, হঠকারী কর্মকাণ্ড এবং পরিকল্পিতভাবে মানুষ হত্যা বন্ধ ও জনগণের মতের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে অবিলম্বে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জামায়াত।

দলের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ডাঃ শফিকুর রহমান শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ আহবান জানান।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, জনগণের ন্যায্য ভোটাধিকার হরণ ও পরিকল্পিতভাবে দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েমের মাধ্যমে জনগণের সাংবিধানিক ও গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করার ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে দেশের সংগ্রামী জনতা ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে। বিরোধী দলের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় শান্তিপূর্ণ উপায়ে পালিত সব কর্মসূচিতে সরকার বাধা সৃষ্টি করে একদিকে নিজেরা সংবিধান লঙ্ঘন করেছে, অপরদিকে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে। দেশে চলছে জনগণের ন্যায্য ভোটাধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন। সরকার নিজেই এ সঙ্কট সৃষ্টি করেছে। রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান রাজনৈতিকভাবে না করে সরকার জনগণের আন্দোলনকে সন্ত্রাসী এবং জঙ্গিবাদী হিসেবে চিহ্নিত করে বিদেশীদের সহানুভূতি পাওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।
পরিকল্পিতভাবে দলীয় ক্যাডারদের দ্বারা বোমা হামলা চালিয়ে তার দোষ জামায়াত ও ২০ দলীয় জোটের ওপর চাপানোর অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে।
তিনি বলেন, সরকারের মনে রাখা দরকার জনগণের অধিকার হরণ করে কোনো স্বৈরাচারী সরকারই ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি, এ সরকারও পারবে না। সরকার ছলে-বলে-কৌশলে ও দমন-পীড়নের মাধ্যমে বিরোধী দলের আন্দোলনকে স্তব্ধ করে দিতে চায়। কিন্তু এভাবে রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান হবে না। তিনি একগুঁয়েমি ও হঠকারিতা পরিহার করে জনগণের ন্যায্য ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়ার নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের আয়োজন করে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য আহবান জানান।