Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:২৮ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

‘কৌশলগত কারণে নির্বাচনে থাকছে বিএনপি’

কৌশলগত কারণে বর্জনে না গিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে থাকতে চায় বিএনপি। দল ও জোট নেতাদের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বৈঠকের পর মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন শেষ পর্যন্ত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে থাকতে চায় বিএনপি।

সোমবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা নির্বাচনে থাকছি। আপাতত বর্জনের কোনো সম্ভাবনা নেই। আমরা নির্বাচনে থেকে দেখতে চাই এই নির্বাচন কমিশন কতোটা অযোগ্য ও খারাপ হতে পারে।

তিনি বলেন, নির্দলীয় সরকারের ছাড়া এদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না, এটা আবার প্রমাণিত হয়েছে। আমরা মনে করি, আগামী নির্বাচন যখনই হোক, তা হতে হবে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এবং একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে।

খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে জেপির আন্দালিব রহমান পার্থ, এলডিপির রেদোয়ান আহমেদ, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) মোস্তফা জামাল হায়দার, খেলাফত মজলিশের আহমেদ আবদুল কাদের, ইসলামী ঐক্যজোটের আবদুর রকীব, জাগপার শফিউল আলম প্রধান, এনডিপির খন্দকার গোলাম মূর্তজা, এনপিপির ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, লেবার পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, পিপলস লীগের গরীবে নেওয়াজ, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম ও যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ শাহজাহানও উপস্থিত ছিলেন বৈঠকে।

ধারনা করা হচ্ছে কৌশলগত কারণে বর্জনে না গিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে থেকে যাচ্ছে বিএনপি, সে কৌশলটি সম্ভবত নির্বাচন কমিশন এবং সরকারের নির্বাচনের ক্ষেত্রে অবস্থানটা কোথায় পৌঁছেছে, তা দেশবাসী ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নির্বাচনে থেকে আরও দেখার সুযোগ সৃষ্টি করে দেয়া। আর সেই দৃষ্টান্ত পরবর্তীতে দলের রাজনৈতিক ফয়দা তৈরিতে সহায়ক হবে।