ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:৪৪ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

কোস্ট গার্ড প্রশিক্ষণ ঘাঁটি সিজি বেইজ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সমুদ্র সম্পদের আহরণ ও সর্বোচ্চ ব্যবহারে সমুদ্র এলাকার সার্বিক নিরাপত্তা গুরুত্বপূর্ণ। এ জন্য প্রয়োজন একটি শক্তিশালী আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী। তিনি আজ এখানে কোস্ট গার্ড প্রশিক্ষণ ঘাঁটি সিজি বেইজ অগ্রযাত্রার উদ্বোধনকালে বলেন, কোস্ট গার্ড বিশাল সামুদ্রিক এলাকা এবং উপকূলীয় অঞ্চলের জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে।
শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করেন যে, কোস্ট গার্ড সদস্যগণ তাদের নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখে দেশের সামুদ্রিক ও উপকূলীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সক্ষম হবেন।
তিনি বলেন, কোস্ট গার্ড তাদের আন্তরিক সেবা ও দক্ষতার মাধ্যমে ইতোমধ্যেই এই অঞ্চলের মানুষের কাছে বিশ্বাস ও নিরাপত্তার প্রতীকে পরিণত হয়েছে।
কোস্ট গার্ডের একটি সুসজ্জিত দল প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন জানায়।
প্রধানমন্ত্রী ওয়াটার ডেকে পৌঁছলে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ও কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক রিয়ার এডমিরাল মকবুল হোসেন তাঁকে স্বাগত জানান।
মন্ত্রীবর্গ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, রাষ্ট্রদূতগণ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, বাংলাদেশে নৌবাহিনী প্রধান এবং উচ্চপদস্থ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
প্রধানমন্ত্রী ঘাঁটিটির কমান্ডেন্ট ক্যাপ্টেন কায়সারুল আলমের কাছে কমিশনিং সার্টিফিকেট হস্তান্তর করেন। তিনি এর নামফলকও উন্মেচন করেন।
কুয়াশার কারণে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা থেকে উপকূলীয় এই জেলায় পৌঁছতে প্রায় তিন ঘণ্টা বিলম্ব হয়।
শেখ হাসিনা বলেন, কোস্ট গার্ডের মূলমন্ত্র হচ্ছে সমুদ্রের অভিভাবক (গার্ডিয়ান এ্যাট সি)। এজন্য সরকার কোস্ট গার্ডের সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়নে উদ্যোগ নিয়েছে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের মূল ভূখণ্ডের প্রায় সমপরিমাণ হচ্ছে সমুদ্র এলাকা। সমুদ্র সম্পদের ওপর দেশের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সমুদ্র সীমা সম্পর্কিত বিরোধ নিষ্পত্তির পটভূমিতে কোস্ট গার্ডের গুরুত্ব আরো বেড়েছে। নতুন প্রশিক্ষণ ঘাঁটি বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে- এ কথা উল্লেখ করে তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, এই ঘাঁটি এই অঞ্চলের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করবে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক সংস্থার জন্য প্রশিক্ষণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য সরকার সকল ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্বারোপ করেছে। এই ঘাঁটির উদ্বোধনের মাধ্যমে কোস্ট গার্ডের ক্রমাগত উন্নয়নে আরেক ধাপ অগ্রগতি হলো।