গ্রেফতার
গ্রেফতার, প্রতীকী ছবি।

কৃত্রিম পুরুষাঙ্গ লাগিয়ে ধর্ষণে দিল্লিতে ‘তরুণী’ গ্রেফতার

দিল্লিতে এক নারীকে ধর্ষণ করার অপরাধে ১৯ বছরের ধনাঢ্য তরুণীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ । তার বিরুদ্ধে কৃত্রিম পুরুষাঙ্গ লাগিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করে সে। ভারতীয় আইনের ধর্ষণের ধারায়ই মামলা দায়ের হয়েছে যুবতীর বিরুদ্ধে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইটিন জানায়, অভিযোগকারী নারী তাঁর বক্তব্যে জানিয়েছেন, অভিযুক্ত তরুণী কোমরে একটি বেল্ট বেঁধে তাতে কৃত্রিম পুরুষাঙ্গ লাগিয়ে ধর্ষণ তাকে করে।

২৫ বছর বয়সী অভিযোগকারী নারী থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে, পুলিশ প্রথমে মামলা নেয়নি। পরে কারকারদোমা জেলা আদালতে সরাসরি অভিযোগ দায়ের করেন নিপীড়িত মহিলা।

এজাহারে বলা হয়, ব্যবসায় অংশীদার করার লোভ দেখিয়ে অভিযুক্ত তরুণী ওই নারীর সঙ্গে বন্ধুত্ব করে। পরে আরও দুই পার্টনার, রোহিত ও রাহুলের সঙ্গে তাঁর আলাপ করিয়ে দেয় সেই তরুণী। এবং তাদের সাহায্যে ও উপস্থিতিতে বেশ কয়েক বার ধর্ষণ করা হয় ওই নারীকে।

ধর্ষণের পর নারীর পরিবারকে ২০ হাজার টাকাও পাঠায় ধনাঢ্য ওই তরুণী। পূর্ব ভারতের বাসিন্দা ওই নারী মূলত কাজের খোঁজেই দিল্লি এসেছিলেন। ফলে, তাঁর পরিবার সেই টাকা সন্দেহ ছাড়াই গ্রহণ করেছিলো।

সর্বশেষ সংশোধিত: , মাধ্যম: শীর্ষ মিডিয়া