ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:০২ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির দায়ে শিক্ষককে জরিমানাসহ এক বছরের কারাদণ্ড

শীর্ষ মিডিয়া ২২ সেপ্টেম্বর ঃ   কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় ছাত্রীদের যৌন হয়রানির দায়ে মকলেচুর রহমান (৪২) নামের এক স্কুলশিক্ষককে জরিমানাসহ এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ সোমবার বিকেল পাঁচটার দিকে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক শামীমুল হক এ দণ্ড দেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের জয়পুর এলাকার জেএমজি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মকলেচুর রহমান বেশ কিছুদিন ধরে ক্লাস নিতে গিয়ে নবম ও দশম শ্রেণির ছাত্রীদের সঙ্গে অশ্লীল কথাবার্তা বলেছেন। তিনি ছাত্রীদের গায়ে হাত দিয়ে মারধর করেছেন।
ছাত্রীদের উল্লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আজ সকালে দৌলতপুর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা (এসিল্যাল্ড) নাহিদা আক্তার ওই স্কুলে গিয়ে সরাসরি ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে অভিযোগের সত্যতা পান। পরে বিকেলে র‌্যাব-১২ হোসেনাবাদ ক্যাম্পের সদস্যরা ওই স্কুলে অভিযান চালিয়ে শিক্ষক মকলেচুর রহমানকে আটক করেন।
পরে শামীমুল হকের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয় মকলেচুরকে। সেখানে উপস্থিত সাক্ষীদের সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মকলেচুরকে এক বছরের কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করেন। জরিমানার টাকা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।
জেএমজি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম জানান, এর আগেও একই অভিযোগে শিক্ষক মকলেচুর রহমানকে দুই মাসের জন্য বিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত করেছিল বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি। মকলেচুর রহমান একই উপজেলার মাদাপুর মিস্ত্রিপাড়া গ্রামের ছিপার উদ্দিনের ছেলে।