ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:১১ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘কী করে বাংলাদেশটা জঙ্গীবাদীদের মুঠোয়’ : তসলিমা

বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন আজ রোববার রাত ১২ঃ৪৫ ঘটিকার দিকে তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন শাহরিয়ার কবির তার জন্য সোয়াস্তিকা আঁকা একটা শাড়ি নিয়ে এসেছিলেন নিউইয়র্ক শহরের ফ্ল্যাট বাড়িতে যেখানে তসলিমা ২০০৯ সনে থাকতেন। একটি ডকুমেন্টারির জন্য দুটো কবিতা রেকর্ড করতে শাহরিয়ার কবির গিয়েছিলেন তসলিমার বাসায়।  শাহরিয়ার কবির এর ডকু-ফিল্মের ভূয়সী প্রশংসা করে তসলিমা লিখেছেন কী করে বাংলাদেশটা ধীরে ধীরে জঙ্গীবাদীদের মুঠোর ভেতর চলে গেছে তা দেখতে চাইলে শাহরিয়ার কবিরের ডকুগুলো দেখতেই হবে। নিম্নে হুবহু স্ট্যাটাসটি দেয়া হলঃ

নিউইয়র্ক শহরের ৯০ ওয়াশিংটন স্ট্রিটে একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিলাম ২০০৯ সালে। ওই ওয়াশিংটন স্ট্রিটেই ছিল টুইন টাউয়ার। আমার ফ্ল্যাটটা অদ্ভুত সুন্দর ছিল। ২৩ তলার ওপর। দু’ দেয়াল জুড়ে কাঁচের জানালা। জানালা দিয়ে দেখা যেত ইস্ট নদী আর হাডসন নদী। পড়ার টেবিলে বসে দেখতাম মেঘ ও রোদের খেলা, ছোট ছোট অসংখ্য সাদা নৌকো, জাহাজও চলে যেত সমুদ্রের দিকে। বিছানায় শুয়ে শুয়ে দেখতাম পূর্ণিমার চাঁদ।

অনেকে বেড়াতে আসতো। একবার শাহরিয়ার কবির এলেন। আমার জন্য সোয়াস্তিকা আঁকা একটা শাড়ি নিয়ে এসেছিলেন। তাঁর একটি ডকুমেন্টারির জন্য আমার দুটো কবিতা রেকর্ড করেছিলেন। অসাধারণ সব ডকু-ফিল্ম বানিয়েছেন শাহরিয়ার কবির। কী করে বাংলাদেশটা ধীরে ধীরে জঙ্গীবাদীদের মুঠোর ভেতর চলে গেছে তা দেখতে চাইলে শাহরিয়ার কবিরের ডকুগুলো দেখতেই হবে।

দু’বছর পর ওই ফ্ল্যাটটা ছেড়ে দিই। ততদিনে নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার ফেলোশিপটা শেষ হয়ে গেছে, আর, ভারত যে ভারতে যেন বাস না করি এই শর্তে আমাকে ভারতে বসবাস করার পারমিট দিত, সেটিরও ইতি ঘটে। এই মেয়েকে যত নির্যাতনই করা হোক না কেন, হাল ছাড়ার পাত্রী সে নয়, তা সরকার পক্ষ ততদিনে বুঝে গিয়েছে।

ফ্ল্যাটটাকে মিস করি কি না? হ্যাঁ, করি। বিশেষ করে পূর্ণিমা রাতে।

 

https://www.facebook.com/nasreen.taslima?fref=photo

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=706937769450684&set=pcb.706941776116950&type=1&theater

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=706940352783759&set=pcb.706941776116950&type=1&theater