Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৫৬ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ডের প্রতিবাদে বুধবার সারাদেশে হরতাল ডেকেছে জামায়াত

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদের সদস্য মীর কাসেম আলীকে ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদণ্ড আপিল বিভাগে বহাল রাখার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে দলটির ভারপ্রাপ্ত আমীর মকবুল আহমাদ।

একই সঙ্গে আপিলের দেয়া রায়কে ‘ন্যায়ভ্রষ্ট’ উল্লেখ করে এর প্রতিক্রিয়ায় ৯ মার্চ বুধবার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা শান্তিপূর্ণ হরতালের ডাক দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার আপিল বিভাগের রায় ঘোষণার পর জামায়াতে ইসলামীর ওয়েবসাইটে দেয়া এক বিবৃতিতে মকবুল আহমদ এ হরতালের ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, হরতাল কর্মসূচি সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ উপায়ে সফল করে তোলার জন্য জামায়াতে ইসলামীর সকল শাখা এবং কৃষক, শ্রমিক, ছাত্র, শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, সুশীলসমাজ ও পেশাজীবীসহ সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ তথা দেশের আপামর জনতার প্রতি আমি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

এ্যাম্বুলেন্স, লাশবাহী গাড়ী, হাসপাতাল, ফায়ার সার্ভিস ও সংবাদপত্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট গাড়ি হরতালের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানান তিনি।

বিবৃতিতে জামায়াতের আমীর মকবুল আহমাদ দাবি করেন, “সরকার ষড়যন্ত্র করে পরিকল্পিতভাবে জামায়াত নেতৃবৃন্দকে একের পর এক হত্যা করছে। সরকারি ষড়যন্ত্রের শিকার মীর কাসেম আলী। সরকার মিথ্যা, বায়বীয় ও কাল্পনিক অভিযোগে মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করে নিজেদের দলীয় লোকদের দ্বারা আদালতে মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়ে তাকে দুনিয়া থেকে বিদায় করার ষড়যন্ত্র করছে।

মাননীয় আদালত সরকারের দায়ের করা মিথ্যা মামলায় সাজানো সাক্ষীর ভিত্তিতে আজ তার বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের যে রায় ঘোষণা করেছেন তা একটি ন্যায়ভ্রষ্ট রায়। এ রায়ে মীর কাসেম আলী ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে তিনি রিভিউ আবেদন করবেন। ন্যায়বিচার নিশ্চিত হলে তিনি খালাস পাবেন বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।