Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীর ইস্যু: পাকিস্তানের উল্টো সুরে চীন

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে পাকিস্তানের উল্টো সুরেই কথা বলছে চীন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কাশ্মীর সমস্যাকে আন্তর্জাতিক বিষয় করে তুলতে চাইলেও চীন মনে করে এটি একান্তই ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক বিষয়। আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি তাদেরই মেটাতে হবে।

ভারত ও চীনের উন্নয়নের রূপরেখা বিষয়ে শান্তিনিকেতনে আন্তর্জাতিক সম্মেলনে আসা চীনের কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞ কিয়ান ফেং সরকারের এই অবস্থান ব্যাখ্যা করে জানান, বেইজিং বরাবরই কাশ্মীর নিয়ে এই অবস্থান নিয়ে চলেছে। তিব্বত ও তাইওয়ানকে যেমন চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে স্বীকার করে দিল্লি।

পাকিস্তানে ভারতের প্রাক্তন হাইকমিশনার টিসিএ রাঘবন জানান, দু’দেশের মধ্যে একটি ‘বোঝাপড়া’ বহুদিন ধরেই চলছে। সেটা হল, তিব্বত ও তাইওয়ানের সমস্যাকে চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে মনে করে ভারত। আর কাশ্মীর নিয়ে ভারতের অবস্থানকেও স্বীকৃতি দেয় চীন।

গত আগস্টের শুরুতে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয় বিজেপি শাসিত ভারত সরকার। এরপর থেকে পাকিস্তান কাশ্মীরে ইস্যু নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে নানা দাবি তোলে। পাকিস্তানের দাবি, কাশ্মীরে মুসলিমদের জাতিগত নিধন চালাতে ভারত বিশেষ মর্যাদা তুলে নিয়েছে।

এছাড়া কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে বর্তমানে ভারত পাকিস্তানের সম্পর্ক তলানিতে নেমেছে। -তথ্যসূত্র:আনন্দবাজার।

শেয়ার অপশন: