Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব বিক্ষোভ

কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের প্রতিবাদে পাকিস্তানের গণবিক্ষোভে হাজার হাজার লোক রাস্তায় নেমে আসেন। এতে নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

শুক্রবার দুপুরে পাকিস্তান ও কাশ্মীরের জাতীয় সঙ্গীত সম্প্রচারের পর দেশজুড়ে সাইরেন বেজে ওঠে। এসময় বিক্ষোভের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে কয়েক মিনিটের গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকে।

রাজধানী ইসলামাবাদেরর কনস্টিটিউশন অ্যাভিনিউতে সরকারি কার্যালয়ের সামনে কয়েক হাজার মানুষ জড়ো হন। এখানেই জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এসময়ে বিরোধপূর্ণ হিমালয় অঞ্চলটি মুক্ত করতে লড়াই অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত আমরা কাশ্মীরের পাশে থাকবো।

নাৎসী জার্মানির থার্ড রাইখের সঙ্গে তুলনা করে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে খোঁচা মারেন সাবেক এই কিংবদন্তি ক্রিকেট তারকা।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে আগামী মাসে ইমরান খানের নিউ ইয়র্ক সফরে যাওয়ার আগ পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে কাশ্মীরে ভারতীয় দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হবে পাকিস্তানে। চলতি শুক্রবারে সেই ধারাবাহিকতার প্রথম বিক্ষোভটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কাশ্মীরকে সরাসরি দিল্লির শাসনে নিয়ে আসার পর পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে চলছে।

রাজ্যটিতে চার সপ্তাহ ধরে ব্যাপক যোগাযোগ অচলাবস্থা চলছে। এতে মানুষের চলাচলে নজিরবিহীন বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। সেখানকার ফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর ধরপাকড়ে ইতিমধ্যে কয়েক হাজার কাশ্মীরি গ্রেফতার হয়েছেন। তাদের ওপর অকথ্য নির্যাতন চালানো হচ্ছে। ছবিঃ  গালফ নিউজ ভায়া টুইটার।

শেয়ার অপশন: