শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৪:১৬ ঢাকা, শনিবার  ১৫ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

আখেরি মোনাজাত
আখেরী মোনাজাতের ফাইল ফটো

কাল সকালে বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত আগামীকাল। তিনদিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমার আজ ছিল দ্বিতীয় দিন। টঙ্গীর তুরাগ তীরে ইজতেমা ময়দানে প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত রোববার অনুষ্টিত হবে।

এ মোনাজাতে দেশি-বিদেশি প্রায় ২০ থেকে ২৫ লাখ মুসল্লি অংশ গ্রহণ করবেন বলে আশা করা হচেছ বেলা সোয়া ১১টা থেকে শুরু করে সাড়ে ১১টার মধ্যে আখেরি মোনাজাত হওয়ার কথা রয়েছে।

মোনাজাত পরিচালনা করবেন ঢাকার কাকরাইল জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মোহাম্মদ যোবায়ের। বিশ্বের মুসলিম উম্মার সুখ, শান্তি, কল্যাণ, অগ্রগতি, ভ্রাতিত্ববোধ ও মঙ্গল কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হবে ২০১এবারের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব।

বিশ্ব ইজতেমার মুরব্বি গিয়াস উদ্দিন আজ বাসসকে জানান, আগামীকাল রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে প্রথম ধাপ। এরপর ১৯ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় ধাপের তিন দিনব্যাপী ইজতেমা শুরু হবে। একইভাবে ২১ জানুয়ারি দুপুরে সকল মানষের সুখ, শান্তি, কল্যাণ, অগ্রগতি, ভ্রাতিত্ববোধ ও মঙ্গল কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব।

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব গতকাল শুক্রবার বাদ ফজর জর্দানের মাওলানা শায়েখ ওমর খতিবের আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়। তাবলিগ জামাত বরাবরের মতো এবারো টঙ্গীর তুরাগতীরে ইজতেমার আয়োজন করেন।

আগামীকাল আখেরি মোনাজাতে অংশ গ্রহণের লক্ষ্যে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে পুরো ইজতেমা ময়দান।

বিশ্ব ইজতেমার আমবয়ান আরবিতে করা হয়। সেটি বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের মাওলানা সালেহ।

মোনাজাতে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ মো. জাহিদ হাসান রাসেল, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান, গাজীপুর জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মতিউর রহমান মতিসহ সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, র‌্যাব, পুলিশ, সেনাবাহিনীর সদস্যরা অংশগ্রহণ করবেন বলে আশা করা হচেছ।

এছাড়া বেশ কয়েকজন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি ইজতেমা মাঠে আখেরি মোনাজাতে অংশ নেওয়া কথা রয়েছে।

প্রথম ধাপে ইজতেমায় অংশ নিয়েছে দেশের ১৬ জেলার মুসল্লিরা।

টঙ্গী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফিরোজ তালুকদার আজ জানান, এ বছর এ পর্যন্ত ইজতেমায় যোগ দিতে আসা দুই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- কাজী আজিজুল হক (৬০) ও আবদুল মামুন (৩৩)। এদের একজন শ্বাসকষ্টজনিত রোগে এবং অপরজন গাড়ির চাপায় মারা গেছেন। ইজতেমা ময়দানে তাদের জানাজা শেষে লাশ গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ইজতেমা ময়দানের গত দুইদিনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ১০টি অভিযান পরিচালনা করে ২ থেকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ইজতেমাস্থলের আশপাশে অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদ এবং হোটেল, রেস্তোরাঁসহ বিভিন্ন দোকানে খাবারের মান ও মেয়াদ যাচাইয়ে এসব অভিযান পরিচালিত হয়। কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসব অভিযান পরিচালনা করেন।

গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ আজ জানান, দেশি-বিদেশি মুসল্লিদের নিরাপত্তায় প্রতিটি খিত্তায় সাদা পোশাকে ৬জন করে পুলিশ দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া রাস্তাঘাট, ব্যস্ততম এলাকাসহ পুরো ইজতেমা ময়দান আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘিরে রেখেছেন। আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে পুরো ইজতেমা ময়দানকে ৮ স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, প্রায় সাড়ে ৭ হাজার পুলিশ ইজতেমা মাঠে মোতায়েন রয়েছে। গত বারের চেয়ে এবার আরো ১৫শ পুলিশ বাড়ানো হয়েছে।
বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে আমেরিকা, সৌদি আরব, ভারত, পাকিস্তান, তুরস্ক, লেবানন, ফিলিপাইন, আফগানিস্তাান, থাইল্যান্ড, আরব আমিরাত, মালয়েশিয়া ও ইংল্যান্ডসহ বিশ্বের ৮৫টি দেশের প্রায় সাড়ে ৪হাজার বিদেশি মুসল্লি অংশ নিয়েছেন।

ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিতে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়, টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ্ মাস্টার সরকারি হাসপাতালসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান ইজতেমা ময়দানের উত্তর পাশে নিউ মন্নু কটন মিলের ভেতরে ৫০টি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। -বাসস