Press "Enter" to skip to content

কারাগারে খালেদা জিয়া চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত : বিএনপি

কারাবন্দি সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে গত সাড়ে তিন মাস ধরে কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এভাবে বিনা চিকিৎসায় সরকার তাকে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ। তার কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। নিয়মিত পরীক্ষা-নিরীক্ষাও করা হচ্ছে না।

কারাগারে যাওয়ার সময় খালেদা জিয়া সুস্থ ছিলেন দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন কারাগারে যাওয়ার সময় সুস্থ ছিলেন। কারাগারের অন্ধকার প্রকোষ্টে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে তাকে অন্যায়ভাবে বন্দি রাখা হয়েছে। এই সময়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। আমাদের পক্ষ থেকে বারবার বলার পরও তার চিকিৎসা দেয়নি সরকার। গত তিন মাসে খালেদা জিয়ার অসুস্থতা আরও বেড়েছে।

খালেদা জিয়ার কিছু হয়ে গেলে এর দায় সরকারকেই নিতে হবে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, গত সাড়ে তিন মাস কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে কোনো চিকিৎসা দেয়া হয়নি। আমরা আশঙ্কা করছি- এর পেছনে গভীর কোনো ষড়যন্ত্র আছে। মূলত তাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা না দিয়ে অকালে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। আমরা সাফ জানিয়ে দিতে চাই- দেশনেত্রীর যদি কোনো প্রকার শারীরিক ক্ষতি হয়, এর দায়দায়িত্ব সরকারকেই বহন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

Mission News Theme by Compete Themes.