ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:২৯ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২১শে জুন ২০১৮ ইং

কর্মচারীকে হত্যা করে ছিনতাইয়ের গল্প সাজালেন

রাজধানীর ওয়ারিতে চুরির অভিযোগে  রেস্তোরাঁ কর্মচারীকে পিটিয়ে ও গুলি করে হত্যার পর ছিনতাইয়ের ‘গল্প সাজিয়ে’ লাশ হাসপাতালে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মালিকের বিরুদ্ধে।

ওয়ারি থানার এসআই আবদুল খালেক জানান, মঙ্গলবার মধ্যরাতে ওয়ারির ৭৩ নম্বর স্বামীবাগ এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। নিহত রিয়াদ হোসেন (২০) মতিঝিলের ‘ঘরোয়া হোটেল’ নামের এক রেস্তোরাঁয় কাজ করতেন।
পুলিশ রেস্তোরাঁর ম্যানেজার শফিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে গেছে। রেস্তোরাঁ মালিক আরিফুল ইসলাম সোহেলের খোঁজে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।
এসআই খালেক জানান, রেস্তোরাঁ মালিক সোহেল মোবাইল ফোন ও টাকা চুরির অভিযোগে রিয়াদের পা বেঁধে নিজেই গুলি করেন বলে স্টাফরা জানিয়েছেন।অথচ মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে গুলিবিদ্ধ রিয়াদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে পুলিশকে বলা হয়, মতিঝিলে ছিনতাইকারীর গুলিতে তিনি নিহত হয়েছেন।
রিয়াদের এক সহকর্মীর বরাত দিয়ে হাসপাতাল ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক মোজাম্মেল হক বিষয়টি জানালে বুধবার সকালে গণমাধ্যমে খবর আসে।  কিন্তু পরে রিয়াদের ভাই রিপন হোসেনের অভিযোগের ভিত্তিতে অনুসন্ধানে এর সঙ্গে রেস্তোরাঁ মালিকের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি বেরিয়ে আসে। পুলিশও পরে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে।
ঘটনার পর হোটেলটি বন্ধ রয়েছে।সূত্র:বিডি নিউজ।