ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:১৩ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

কম্পিউটার ব্যবহারে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ৭ কোটি মানুষ

মহামারীর মতো ছড়াচ্ছে কম্পিউটার ভিশন সিনড্রোম। পেশাগত কারণে যাদের ৩-৪ ঘণ্টা বা তার বেশি কম্পিউটারের সামনে বসে থাকতে হয়, তাদের মধ্যে ৭০ থেকে ৯০ শতাংশ মানুষের মধ্যেই দেখা দিচ্ছে এ রোগের লক্ষণ।

বেশি ঝুঁকির মুখে রয়েছেন অ্যাকাউন্টেন্ট, ব্যাংককর্মী, ইঞ্জিনিয়ার, বিমান কন্ট্রোলার, গ্রাফিক শিল্পী, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ, সচিব ও ছাত্রছাত্রীরা। একটি রিপোর্টে উঠে এসেছে এমনই ভয়াবহ তথ্য। কম্পিউটারের এ মারাÍক প্রভাব থেকে চোখকে বাঁচাতে ২০-২০-২০ ফর্মুলা বাতলাচ্ছেন চক্ষু বিশেষজ্ঞরা। খবর ইন্ডিয়া টাইমসের।

মেডিকেল প্র্যাকটিস অ্যান্ড রিভিউ ম্যাগাজিনে প্রকাশিত নাইজেরিয়া ও বোটসওয়ানার চক্ষু বিশারদদের লেখায় আশংকা করা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী ৭ কোটি কর্মী কম্পিউটার ভিশন সিনড্রোমের ঝুঁকির মুখে রয়েছেন। যে কোটি কোটি শিশু ও কিশোর-কিশোরীরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা কম্পিটারের সামনে বসে গেমস খেলে, তাদেরও এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল বলে রিপোর্টে জানানো হয়েছে।

দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারে কাজ করলে চোখ ড্রাই হয়ে যাওয়ায় ডাবল ভিশন, চোখ জ্বালা করা, চোখে চুলকানি, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, চোখ পিটপিট করার মতো বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। এর প্রভাবে শুধু যে দৃষ্টিশক্তির ক্ষতি হয় তা নয়, এর প্রভাবে নার্ভের সমস্যাও দেখা দেয়। ফলে মাথাব্যথা, পেশির ব্যথা, ঘাড়ে-পিঠে ব্যথা হওয়ার কথা শোনা যায় ভূরি ভূরি।

চোখের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আপনার মধ্যে যদি এ ধরনের কোনো লক্ষণ দেখা যায়, তবে ২০-২০-২০ ফর্মুলা অবশ্যই মেনে চলুন। কী এ ফর্মুলা? খুব সহজ। প্রতি ২০ মিনিট কম্পিউটারে কাজ করার পর ২০ সেকেন্ড চোখকে বিশ্রাম দিন। আর ২০ ফিট দূরের কোনো বস্তুর দিকে তাকান।