Press "Enter" to skip to content

কনডমের কারণে জার্মান পুলিশের জেল

যৌন মিলনের মাঝপথে সঙ্গীর অনুমতি ছাড়া কনডম সরিয়ে লুকিয়ে ফেলেছিলেন ঐ পুলিশ সদস্য৷ যৌন অপরাধ আইন সংস্কারের ফলে এমন অপরাধের বিচার করা সম্ভব হলো জার্মানিতে৷

৩৭ বছর বয়সি বার্লিনের এই পুলিশ সদস্যকে আট মাসের জেল ও তিন হাজার ইউরো জরিমানা করা হয়েছে৷ গত বছর নভেম্বরে ঐ ব্যক্তির বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে৷ জার্মান দৈনিক বিল্ড-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২৬ বছর বয়সি ঐ নারী অভিযুক্ত ব্যক্তিকে কনডম পরতে বারবার অনুরোধ করেছিলেন৷

কিন্তু অভিযুক্ত ব্যক্তি কনডম পরলেও পরে মাঝপথে তা খুলে ফেলেন৷ ঐ নারী পরে তা টের পান৷ ঘটনার শিকার নারী এতে রাগান্বিত হয়ে সেখান থেকে চলে যান৷ যৌনরোগ ছড়ানো ও গর্ভবতী হবার আশঙ্কা করেন তিনি৷ পরদিন ঐ ব্যক্তি ফোনে টেক্সট পাঠিয়ে ক্ষমা চান৷ ঐ ব্যক্তি দাবি করেন যে, মাঝপথে কনডমটি ফেটে গেলে তিনি তা সরিয়ে ফেলেন৷

২০১৬ সালে জার্মান যৌন অপরাধ আইন সংস্কার করা হয়৷ সেখানে সঙ্গীর অনুমতি ছাড়া যৌন মিলনে লিপ্ত হলে তা ধর্ষণ বা র শামিল হবে৷ তবে এই ক্ষেত্রে ঐ নারী মিলনে বাধা দেননি৷ তবে কনডম ছাড়া মিলনে লিপ্ত হবার অনুমতিও দেননি৷ তাই ঐ ব্যক্তি অভিযুক্ত হয়েছেন৷ অভিযুক্ত ব্যক্তি রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন৷ –ডিডব্লিউ

শেয়ার অপশন:

Comments are closed.