Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:১৫ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

ডোনাল্ড ট্রাম্প
যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান দল থেকে প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প

ওবামার ‘জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার’ ইঙ্গিত দিলেন ট্রাম্প

ওবামার ‘মুসলিম হওয়া’ ও ‘জঙ্গী সংশ্লিষ্টতার’ ইঙ্গিত দিলেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট পদ প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। ২০১১ সালে ওবামার আমেরিকান হবার জন্ম সনদ দেখার জন্য হওয়া আলোচনায়ও নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ট্রাম্প। এবার অরল্যান্ডোর নৈশক্লাবে হামলার পর বারাক ওবামার ‘নমনীয়’ বক্তব্যে ক্ষুব্ধ ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্টের সঙ্গে চরমপন্থি ইসলামি জঙ্গিদের সম্পর্ক থাকার ইঙ্গিত করলেন।

আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ওবামার প্রতিপক্ষ দল রিপাবলিকান পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী ট্রাম্প সোমবার ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “দেখুন, আমরা এমন এক ব্যক্তির দ্বারা পরিচালিত হচ্ছি যিনি কঠোর নন, বিচক্ষণ নন অথবা তার মনে অন্য কিছু আছে। এবং মনে অন্য কিছু থাকার অর্থ….. আপনি বুঝতেই পারছেন। যদিও জনগণ এটা বিশ্বাস করে না। জনগণ বিশ্বাস করতে পারবে না যে, প্রেসিডেন্ট ওবামা নিজের মতো করে অভিনয় করছেন। এমন কি তিনি ‘চরমপন্থি ইসলামি সন্ত্রাসী’ শব্দও কখন বলেন না। সেখানে কিছু একটা চলছে। যেটা কল্পনাতীত। সেখানে কিছু একটা হচ্ছে।”

শনিবার মধ্যরাতে ফ্লোরিডার একটি নৈশক্লাবে ওমর সিদ্দিকী মতিন নামে একজন মার্কিন মুসলিম বন্দুকধারীর হামলায় ৫০ জনের মৃত্যু হয়।

ওবামা এ হামলাকে ‘চরমপন্থি ইসলামি সন্ত্রাসীর’ হামলা না বলায় রবিবার ওবামাকে পদত্যাগ করার আহ্বান জানান ট্রাম্প। কেন তিনি এই আহ্বান জানিয়েছিলেন তার ব্যাখ্যায় ট্রাম্প বলেন, হয় তিনি (ওবামা) বিষয়টি বুঝতে পারেননি অথবা অন্য যে কারো চাইতে ভালো বুঝেছেন। গত কয়েক মাসে ট্রাম্প বেশ কয়েকবারই ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বলে আসছেন, প্রেসিডেন্ট ওবামা খ্রিস্টান নন এবং মুসলিমদের প্রতি তিনি সহানুভূতিশীল।

২০১১ ওবামার জন্মসনদ প্রকাশের এবং তার যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণ করার প্রমাণ দেয়ার যে দাবি উঠেছিল, সেখানে অগ্রণী ভূমিকায় ছিলেন ট্রাম্প। এ সম্পর্কে ফক্স নিউজকে ট্রাম্প বলেন, হয়ত সেটা তার মুসলিম হওয়ার কথাই বলবে।

মুসলিম পিতার সন্তান ওবামা তার মায়ের খ্রিস্টান ধর্ম পালন করেন।

সোমবার বিকালে টেলিভিশন চ্যানেল এনবিসি নেটওয়ার্কের ‘টুডে’ শোতে ট্রাম্পের কাছে প্রেসিডেন্ট ওবামা সম্পর্কে এই ধরনের মন্তব্য করার কারণ জানতে চাওয়া হয়। সেখানে ট্রাম্প বলেন, অনেক মানুষ ভাবছে হয়ত তিনি (ওবামা) বিষয়টা বুঝতে চাচ্ছেন না। অনেকে ভাবছে তিনি হয়ত বিষয়টা সম্পর্কে কিছু জানতে চান না। আমার মনে হয়, তিনি জানেন না তিনি আসলে কি করেছেন। যদিও অনেক মানুষ ভাবছে তিনি হয়তো বিষয়টি বুঝতে চাচ্ছেন না। বাস্তবে কী ঘটছে, সেটা আসলে তিনি দেখতে চাচ্ছেন না এবং সম্ভবত এটাই।

‘সম্ভবত এটাই’ বলতে কী বোঝাতে চাইছেন- এ প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, ‘কেন তিনি এ বিষয়ে কিছু বলছেন না? তিনি বিষয়টি নিয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলছেন না। এটা আসলে কি সেটা সম্পর্কে তিনি জানতে চাচ্ছেন না। এটা চরমপন্থি মুসলিমদের সন্ত্রাসবাদ। এটা জার্মানির সঙ্গে যুদ্ধ নয়; এটা জাপানের সঙ্গে যুদ্ধ নয়, যেখানে তারা ইউনিফর্ম পরে যুদ্ধ করে।’

রয়টার্সের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য ট্রাম্পের মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। হোয়াইট হাউজ থেকেও কেউ এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। বিডি নিউজ।