Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫৩ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২০শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম
ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, ফাইল ফটো

ঐক্যবদ্ধ থাকলে অপশক্তিকে প্রতিহত করা সম্ভব: মন্ত্রী তারানা

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এমপি বলেছেন, একাত্তরের মতো ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল অপশক্তি রুখে দিতে হবে।
তিনি বলেন, নিজেরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে যে কোন অপশক্তিকে প্রতিহত করা সম্ভব।

প্রতিমন্ত্রী আজ শুক্রবার টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার আগদিঘুলিয়া, ঘোনাপাড়া ও কুমুল্লির ধলেশ্বরী নদীর ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী আগদিঘুলিয়ার ভাঙ্গন কবলিত এলাকায় পৌছলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেন, নদী থেকে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলেই ধলেশ্বরী নদীতে এতো ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে।

এসময় প্রতিমন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোকে সান্তনা দিয়ে বলেন, আমরা যদি ’৭১ সালে ঐক্যবদ্ধ হয়ে পাকিস্থানী হায়েনাদের রুখতে পারি তাহলে এখন আমরা বালু খেকোদের কেন রুখতে পারবো না। তিনি দ্রুত ভাঙ্গন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন।
তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে আলোচনা করে এখানে এক কিলোমিটার বাঁধের ব্যবস্থা করবেন বলেও জানান।

নদী তীরবর্তী মানুষকে ভীত না হয়ে সাহসের সাথে সকলে মিলে পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য তিনি এ সময় আহবান জানান।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুস সবুর, পাকুটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম খান, মোকনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়াজেদ কাজী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন যমুনা-ধলেশ্বরী নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় নাগরপুরের প্রত্যন্ত চরাঞ্চল বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। উপজেলার ভারড়া, মোকনা, সহবতপুর, দপ্তিয়র, পাকুটিয়া ইউনিয়নের ২০/২৫ টি গ্রামে বন্যার পানি ঢুকেছে।